আইন ও আদালত

আ.লীগ নেতার ভাতিজা পাগলা বাবু ডাকাতি মামলায় আটক

7802-2

বাংলাদেশ একাত্তর/অনলাইন ডেক্স: 

রাজধানী জুড়েই বেড়ে চলেছে কিশোর গ্যাংয়ের উৎপাত। পল্লবী থানা এলাকায়ও তার কমতি নেই। সন্ধ্যান হলেই চুরি ছিনতাই ডাকাতি করতে নেমে পড়ে তারা। এদের সেল্টার দেয় স্থানীয় কথিত নেতারা। 

অভিযোগ রয়েছে পল্লবী থানা আওয়ামীলীগ নেতার ভাতিজা হওয়ার সুবাদে পাগলা বাবু বিভিন্ন ধরনের অপরাধ কার্যক্রমের সাথে জড়িত হয়ে পড়ে। বিভিন্ন অপরাধ কর্মকান্ড করেও বার বার পার পেয়ে যায়। বাবুর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার সাহস রাখেনা এলাকার কেউই। তবে এবার থানার পুলিশের দ্বারে দ্বারে কারি কারি টাকা নিয়েও ভাতিজাকে ডাকাতি মামলা থেকে রক্ষা করতে পারেনি সেই আওয়ামীলীগের নেতা। গত (২১ মার্চ) ২০২১ইং তারিখে মিরপুর-১২ সরকারি বঙ্গবন্ধু কলেজ (সংলগ্ন) ডাকাতি প্রস্তুত কালে পুলিশের চৌকস টিমের হাতে গ্রেফতার হন তিনজন ডাকাত সদস্য। পরে তাদের জবানবন্দিতে আটকরা হয় মনির হোসেন বাবুকে।

অন্য আসামীরা হলো- মােঃ শরিফ@আরিফ @ডাশা (২০),  মােঃ রিয়াজ (২০), মােঃ হারুন (১৮)।,

ঘটনার সময় আশেপাশে অবস্থান করছিলো মনির হােসেন বাবু (৩৪), পিতা, মৃত আবুল কাশেম, মাতা- মরিয়ম বেগম , স্থায়ী : সেকশন-১১, ব্লক-এ, রােড-১৭, বাসা-১৮। নান্নু মার্কেট সংলগ্ন।

বাবুর রয়েছে বাহারি রকমের নাম, কেউ বলে সুন্দরী বাবু, কেউ বলে ডেস্পারেট বাবু। কেউবা বলে পাগলা বাবু। 

এজাহারে উল্লেখ আসামী ১। মােঃ শরিফ @ আরিফ @ ডাশা (২০) এর দেহ তল্লাশি করে আসামীর পরিহিত প্যান্টের কোমড়ের পিছনে পেপার কাগজ দ্বারা মােড়ানাে গােজা অবস্থায় একটি প্লাস্টিকের বাটযুক্ত ধারালাে স্টীলের চাপাতি,যা লম্বা ১২ ইঞ্চি, ধৃত আসামী-২। মােঃ রিয়াজ (২০) এর দেহ তল্লাশি করে আসামীর পরিহিত প্যান্টের কোমড়ের পিছনে পেপার কাগজ দ্বারা মােড়ানাে গােজা অবস্থায় একটি লাহার বাটিযুক্ত ধারালো লোহার চাকু যা লম্বা ১২ ৫ ইঞ্চি, ধৃত আসামী-৩। মােঃ হারুন (১৮) এর দেহ তনল্লাশি করে আসামীর পরিহিত প্যান্টের পিছনের বাম পাশের পকেটে রক্ষিত একটি কাঠ ও স্টীলের বাটযুক্ত স্টীলের সুইচ গেয়ার চাকু, যা লম্বা ৯.৫ ইঞ্চি পূর্বক গত ২১০৩ ২০২১ খ্রিঃ ২১.৩০ ঘটিকার সময় বৈদ্যুতিক আলোতে জব্দ করে তালিকা করা হয়।

অভিযোগে আরও উল্লেখ থাকে গ্রেফতারকৃত আসামী ১। মনির হােসেন বাবু (৩৪) এর নাম ঠিকানা যাচাই করা হচ্ছে। উক্ত সন্ধিগ্ধ গ্রেফতারকৃত আসামী মনির হােসেন বাবু (৩৪) জামিনে মুক্তি পেলে চিরতরে পলাতক হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। মামলা তদন্ত কার্য শেষ না হওয়া পর্যন্ত উক্ত সন্ধিগ্ধ গ্রেফতারকৃত আসামী ১। মনির হােসেন বাবু (৩৪) কে জেল হাজতে আটক রাখারও দাবী জানান বাদী।

ঘটনার প্রায়ই এক মাস পর পাগলা বাবুকে আটক করে পল্লবী থানা পুলিশ।

মামলার বাদী, পল্লবী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ মোরশেদ আলী বাংলাদেশ একাত্তর বলেন, বাবুকে পেন্ডিং মামলায় আটক করা হয়।  

 

 

 

Print Friendly, PDF & Email
Comments
Share
bangladesh ekattor

bangladesh ekattor

বাংলাদেশ একাত্তর.কম

Reply your comment

Your email address will not be published. Required fields are marked*

9 − 7 =

বাংলাদেশ একাত্তর