রবিবার , ২৪ ডিসেম্বর ২০২৩ | ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আওয়ামীলীগ
  4. আন্তর্জাতিক
  5. খেলাধুলা
  6. জাতীয়
  7. তথ্য-প্রযুক্তি
  8. ধর্ম
  9. বি এন পি
  10. বিনোদন
  11. বিশেষ সংবাদ
  12. রাজধানী
  13. লাইফস্টাইল
  14. শিক্ষা
  15. শিল্প ও সাহিত্য

১৬ আসনে নির্বাচনী প্রচারণায় এগিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী সালাউদ্দীন রবিন

প্রতিবেদক
bangladesh ekattor
ডিসেম্বর ২৪, ২০২৩ ১২:৪৬ অপরাহ্ণ

ঢাকা ১৬ আসনে নির্বাচনী প্রচারণায় এগিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী সালাউদ্দীন রবিন, ১৬ আসনের সাধারণ মানুষের ব্যাপক সাড়া পাচ্ছেন তিনি;

নিজস্ব প্রতিবেদক, ২৪ ডিসেম্বর, ২০২৩

ঈগল মার্কার প্রতীক পেয়ে ঢাকা-১৬ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী রূপনগর থানা আওয়ামিলীগের সাধারণ সম্পাদক ও বাংলা কলেজের সাবেক (ভিপি) ১৬ আসনের সুপরিচিত সালাউদ্দীন রবিন তার নির্বাচনীয় এলাকা ঢাকা ১৬ আসনে গত কয়েকদিন ধরে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণার শুরুতে তিনি এগিয়ে রয়েছেন অন্য প্রার্থীর থেকে। সমর্থন পাচ্ছেন স্থানীয় সকল শ্রেণির মানুষের। এই আসনের সর্বস্তরের জনগণের সমর্থন পেয়ে রাতদিন বিরামহীনভাবে ছুটছেন একপ্রান্ত থেকে আরেকপ্রান্তে। সাধারণ মানুষও তাকে পেয়ে কোলাকুলি করতেও ভুল করেননি।

প্রতিদিন সাধারণ জনগণ বেষ্টিত হয়ে রূপনগর ও পল্লবী থানাধীন এলাকার বিভিন্ন পাড়া মহল্লায়, নির্বাচনী সভা, আলোচনা সভা, মতবিনিময় করে যাচ্ছেন ভিপি রবিন। তার সকল নির্বাচনী সভায়, নারী, পুরুষ, যুবক, কিশোরসহ সর্বস্তরের মানুষরা অংশ নিচ্ছেন। এছাড়া প্রতিটি ভোটারের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট প্রার্থনা করেছেন। ভোটাররাও তাকে সমর্থনসহ সকল ধরনের সহযোগিতা করে যাচ্ছেন।

স্থানীয় এলাকাবাসী ও ভোটার বাংলাদেশ একাত্তরকে জানায়, প্রতিদিনের নির্বাচনী গণসংযোগে শতশত জনগণ স্বেচ্ছায় উপস্থিত হয়ে সালাউদ্দীন রবিনের প্রচারণায় অংশ নিচ্ছেন। তার দীর্ঘদিনের লালিত স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করার জন্য স্থানীয় সকল জনগণ মাঠে ঝাঁপিয়ে পড়ছেন। সবার একটি দাবি এবারেই তাকে এমপি হিসেবে দেখতে চাই। একাধিক সূত্র জানিয়েছে, সুষ্ঠু ভোট হলে বিশাল ভোটের ব্যবধানে তিনি বিজয়ী হবেন।

স্থানীয় ভোটাররা আরও বলেন, সালাউদ্দিন রবিন হচ্ছে এই এলাকাতে দীর্ঘদিন যাবত বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাথে জড়িত। সে কোনো হাইব্রিড নেতা নয়। তাকে সবাই চিনে জানে। তিনি সবসময় একজন সেবক হিসেবে সাধারণ মানুষের পাশে আছেন। কোনো অন্যায় অসঙ্গতির সঙ্গে তার কোনো সম্পর্ক নেই। এমনকি তার কোনো আত্মীয় স্বজন নেই তারা মানুষের সাথে বাজে আচরণ করবে। এমন তথ্য জানান স্থানীয়রা।

মিরপুর ১১ বিহারী ক্যাম্পের বাসিন্দা সালমান বলেন, এই আসনে নারী কেলেংকারী, ভূমিদস্যুদের কোনো স্থান নেই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাধারণ মানুষের হাতে প্রার্থীর যোগ্যতা বাছাইয়ের  সুযোগ দিছে তা আমরা কাজে লাগাবো। সুযোগ এসেছে সেই কালসী বস্তিতে আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে হত্যার বিচার চাওয়া, জমি দখল চাঁদাবাজিসহ বিহারীদের উচ্ছেদ আতংকে ফেলে মামলা হামলার সকল অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার। এবার এলাকাবাসী ভোট দিয়ে বিজয়ী করবে। ১৬ আসনে যত প্রার্থী আছে তার মধ্যে সেরা প্রার্থী হলেন সালাউদ্দীন রবিন।

স্থানীয় একাধিক গার্মেন্টস শ্রমিক বলেন, আমরা এবার সিদ্ধান্ত নিয়েছি সালাউদ্দীন রবিন কে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করব। মোল্লারে তিনবার এমপি বানিয়ে তো দেখলাম। এবার একবার সালাউদ্দিন রবিক কে বানিয়ে দেখি।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ২,৩,৫ ও ৬ নং ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত হয়েছে ঢাকা-১৬ আসন। বিহারী জনগোষ্ঠীর ভোট সংখ্যাও কম নয়।

ঢাকার উত্তর প্রবেশ মুখের এই আসন রাজনৈতিক-বাণিজ্যিকভাবে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। মিরপুর হয়ে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে খুব সহজেই আশা যওয়া করা যায়।

ঢাকা-১৬ আসনটিতে অপেক্ষাকৃত উচ্চ মধ্যবিত্ত বা উচ্চবিত্তসহ সকল শ্রেণি মানুষের বসবাস, যাদের সিংহভাগই ব্যবসা-বাণিজ্যের সঙ্গে জড়িত। ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লার বিভিন্ন কর্মকাণ্ড নিয়ে খোভ থাকলেও তা ভয়ে অনেকেই প্রকাশ করতে পারছেন না। নিরব ভোটের মাধ্যমে স্বতন্ত্র প্রার্থী কে বিজয় করবেন বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মধ্য বিত্ত ও খেটে খাওয়া মানুষ।

মিরপুর ১১ মিল্লাত ক্যাম্প বাসীদের উদ্দেশ্যে করে স্বতন্ত্র প্রার্থী সালাউদ্দীন রবিন বলেন, আমার কোনো ভাই ভাতিজা নেই, যে তারা আপনাদের উৎপাত করবে। ঘর বাড়ী দখল করবে। বস্তিতে আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে দখল করবে। আমি গরিব, গরিবের কষ্ট বুঝি,আমি যদি নির্বাচিত হই তাহলে কথা দিলাম বিহারী জনগোষ্ঠীদের উপর কেউ ভেকু দিয়ে চাপা দিতে পারবেনা। আপনাদের নাগরিক সকল সুবিধা পাবেন। উচ্ছেদের নামে মামলা হামলা দিতে পারবেনা। আপনারা আমাকে একটি বার ১৬ আসনের দায়ীত্বদেন।

সর্বশেষ - সর্বশেষ সংবাদ