শুক্রবার , ১২ জানুয়ারি ২০১৮ | ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আওয়ামীলীগ
  4. আন্তর্জাতিক
  5. খেলাধুলা
  6. জাতীয়
  7. তথ্য-প্রযুক্তি
  8. ধর্ম
  9. বি এন পি
  10. বিনোদন
  11. বিশেষ সংবাদ
  12. রাজধানী
  13. লাইফস্টাইল
  14. শিক্ষা
  15. শিল্প ও সাহিত্য

সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে : প্রধানমন্ত্রী

প্রতিবেদক
bangladesh ekattor
জানুয়ারি ১২, ২০১৮ ১১:০৪ অপরাহ্ণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আগামী সংসদ নির্বাচন হবে সংবিধান অনুযায়ী। তিনি বলেছেন সংবধিান অনুযায়ী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে নির্বাচনকালীন সরকার গঠিত হবে। সেই সরকার সর্বোতভাবে নির্বাচন কমিশনকে নির্বাচন পরিচালনায় সহায়তা দিয়ে যাবে। বর্তমান সরকারের চার বছর পূর্তিতে আজ শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে এ কথা বলেন তিনি।

নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কীভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে তা আমাদের সংবিধানে স্পষ্টভাবে বলা আছে। প্রধানমন্ত্রী জানান, ২০১৩ সালের মতই নির্বাচনের আগে মন্ত্রিসভা পুনর্গঠনের মাধ্যমে একটি ‘নির্বাচনকালীন সরকার’ গঠন করা হবে। সেই সরকার নির্বাচন পরিচালনায় নির্বাচন কমিশনকে সর্বোতভাবে সহায়তা দিয়ে যাবে।

একটি অসাধু মহল আগামী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দেশে অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টির অপচেষ্টা করতে পারে বলে দেশবাসীকে এ ব্যাপারে সতর্ক থাকার আহ্বান জানা প্রধানমন্ত্রী। এ সময় বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, নির্বাচন বয়কট করে আন্দোলনের নামে জনগণের জানমালের ক্ষতি করবেন- এটা আর এদেশের জনগণ মেনে নেবেন না।

সকল নিবন্ধিত দল নির্বাচনে অংশ নেবে বলে আশা প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি আশা করি, নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধিত সকল দল আগামী সাধারণ নির্বাচনে অংশ নেবেন এবং দেশের গণতান্ত্রিক ধারাকে সমুন্নত রাখতে সহায়তা করবেন।

প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ জাতীয় চার নেতা, মুক্তিযুদ্ধের ৩০ লাখ শহীদ, দুই লাখ নির্যাতিত মা-বোন এবং মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের সহযোগিতাকারীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

বাংলাদেশকে ‘সোনার বাংলা’ হিসেবে গড়ে তুলতে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের কথা তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, সেই আকাঙ্ক্ষা পূরণ করাই তারর ‘একমাত্র ব্রত’। তিনি বলেন বাংলার মানুষ যেন অন্ন পায়, বস্ত্র পায়, উন্নত জীবনের অধিকারী হয়- জাতির পিতার এই উক্তি সর্বদা আমার হৃদয়ে অনুরণিত হয়। তাই সর্বদা আমার একটাই প্রচেষ্টা- কীভাবে বাংলাদেশের মানুষের জীবনকে অর্থবহ করব, স্বচ্ছল ও সুন্দর করে গড়ে তুলব।

প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি সময় ধরে সরকার প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তিন মেয়াদে ১৪ বছর প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। ১৯৯৬ থেকে ২০০১ পর্যন্ত সরকারের নেতৃত্ব দেওয়ার পর আওয়ামী লীগ নির্বাচনে হেরে গেলে শেখ হাসিনা হন বিরোধদলীয় নেতা। এরপর ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বরের নবম সংসদ নির্বাচনে তিন-চতুর্থাংশ আসনে জয় পায় আওয়ামী লীগ। ২০০৯ সালের ৬ জানুয়ারি আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে গঠিত হয় মহাজোট সরকার। এরপর ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী হয়ে দ্বিতীয় মেয়াদে সরকার গঠন করে টানা ৯ বছর সফলতার সাথে সরকার পরিচালনা করছেন তিনি।।

সর্বশেষ - সর্বশেষ সংবাদ

আপনার জন্য নির্বাচিত
ডোপ টেস্ট মাদকের নমুনা থাকায় ছয় পুলিশ চাকরিচ্যুত

ডোপ টেস্ট মাদকের নমুনা থাকায় ছয় পুলিশ চাকরিচ্যুত

বাউনিয়াবাধে মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করায় আমিরের পাশে এমপি-ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লা

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে দেয়াল চিত্র ও আলপনা অংকন

প্রকৃত তাঁতীরাদের নাম নেই পুর্নবাসন প্লট বরাদ্দের তালিকায়: করোনায় ধ্বংস প্রায়ই বেনারসি তাঁত শিল্প

জাল দলিল ও জবর দখলের সর্বোচ্চ শাস্তি ৫ বছর জেল ও ১০ লাখ টাকা অর্থ দন্ড

পল্লবীতে রাশিয়া ফেরত যুবকের গলাকাঁটা লাশ উদ্ধার

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পদ্মায় ডুবল মাইক্রোবাস!

সাংসদ শিমুলের বিরুদ্ধে করা জিডি সম্পুর্ণ মিথ্যা- জানালো রাজশাহী পুলিশ

ছাতকে হরতাল ও নৌ-পথ অবরোধের সমর্থনে বিক্ষোভ মিছিল

মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ২৬০০ বাস্তহারা পরিবারের পুর্নবাসন প্রকল্পের দলিল হস্তান্তর