আইন ও আদালত, জাতীয়

সন্ত্রাসী হামলায় নিহত যুবলীগ নেতা রাসেল মোল্লার দাফন সম্পন্ন

%e0%a6%86%e0%a6%9c-%e0%a6%97%e0%a7%8b%e0%a6%aa%e0%a6%be%e0%a6%b2%e0%a6%97%e0%a6%9e%e0%a7%8d%e0%a6%9c%e0%a7%87-%e0%a6%b8%e0%a6%a8%e0%a7%8d%e0%a6%a4%e0%a7%8d%e0%a6%b0%e0%a6%be%e0%a6%b8%e0%a7%80
বাংলাদেশ একাত্তর.কম / নিজেস্ব প্রতিবেদকঃ
গোপালগঞ্জে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত যুবলীগ নেতা রাসেল মোল্লার আজ দাফন সম্পন্ন হয়েছে। বুধবার সকাল  সাড়ে ১০টায় সদর উপজেলার কাঠি বাজারে ঈদগাহ মাঠে দ্বিতীয় জানাযা শেষে তার গ্রামের বাড়ি খানারপাড়ে তাকে দাফন করা হয়।
এর আগে সকাল ৯ টায় গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা যুবলীগের আয়োজনে সরকারি বঙ্গবন্ধু কলেজ মাঠে প্রথম জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শেখ লুৎফর রহমান বাচ্চু, জেলা আওয়ামীলীগের প্রচার-সম্পাদক এম. বদরুল আলম (বদর), জেলা যুবলীগ সভাপতি জি.এম. সাহাবুদ্দিন আজম, সাধারণ-সম্পাদক এম.বি. সাইফ বি, সদর উপজেলা যুবলীগ সভাপতি জাহেদ মাহামুদ বাপ্পি, সাধারণ-সম্পাদক ফিরোজ মাহমুদ ও দলীয় নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষ জানাযায় অংশ নেন।
প্রসঙ্গত, গত ২৯ জুলাই রাতে গোপালগঞ্জ শহর-সংলগ্ন ঘোষেরচর কলাবাগান এলাকায় বাসায় ফেরার পথে সদর উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাসেল মোল্লা সন্ত্রাসী হামলার শিকার হন। প্রায় দু’সপ্তাহ মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে মঙ্গলবার সকালে তিনি মারা যান।
জানা যায়, জমিজমা সংক্রান্ত বিষয়াদি নিয়ে পারিবারিক কোন্দলের জেরে আপন খালু কথিত সাংবাদিক মাহমুদ কাজীসহ আজ্ঞাত নামা ৫/৬ জন মিলে রাতের আধারে এ হামলা চালায়।
এ ব্যাপারে ৩০ জুলাই রাসেল মোল্লার মা পারভীন বেগম বাদী হয়ে মাহামুদ কাজীকে প্রধান আসামী এবং অজ্ঞাত আরও ৫/৬ জনকে আসামী করে সদর থানায় একটি মামলা (নং-৪৯) দায়ের করেন।
গোপালগঞ্জ সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম বলেন, এ মামলার প্রধান আসামী মাহমুদ কাজী কে আটক করে জেল হাজতে প্রেরন করি। পরে আসামী আদালত থেকে জামিনে মুক্তিপান।
Print Friendly, PDF & Email
Comments
Share
bangladesh ekattor

bangladesh ekattor

বাংলাদেশ একাত্তর.কম

Reply your comment

Your email address will not be published. Required fields are marked*

sixteen − eleven =

বাংলাদেশ একাত্তর