আন্তর্জাতিক, তথ্য-প্রযুক্তি, বিনোদন, বিশেষ সংবাদ, রাজধানী, সর্বশেষ সংবাদ, সারাদেশ

র‌্যাব এওয়ার্ড-২০২১” জঙ্গি দমনে র‌্যাব-৪ প্রথম

%e0%a6%b0%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%be%e0%a6%ac-%e0%a6%8f%e0%a6%93%e0%a7%9f%e0%a6%be%e0%a6%b0%e0%a7%8d%e0%a6%a1-%e0%a7%a8%e0%a7%a6%e0%a7%a8%e0%a7%a7-%e0%a6%9c%e0%a6%99%e0%a7%8d%e0%a6%97

“র‌্যাব এওয়ার্ড-২০২১” জঙ্গি দমনে র‌্যাব-৪ প্রথম;

বাংলাদেশ একাত্তর.কম/অনলাইন ডেস্ক;

র‌্যাব-৪ প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই জঙ্গি দমন, অস্ত্রসহ শীর্ষ সন্ত্রাসী গ্রেফতার, মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনাসহ চাঞ্চল্যকর ও ক্লুলেস হত্যার রহস্য উন্মোচন, ধর্ষণ, অপহরণ, চুরি ও ডাকাত সদস্য গ্রেফতারের মধ্য দিয়ে সার্বিকভাবে র‌্যাবের আভিযানিক কার্যক্রমে অবদানের পাশাপাশি নিত্য নতুন অপরাধ নির্মূলে বিশেষ অবদান রেখে চলেছে। তারই স্বীকৃতিস্বরূপ বিগত ২০২১ সালে সামগ্রিক আভিযানিক কার্যক্রমের ভিত্তিতে র‌্যাবের সকল ব্যাটালিয়নের মধ্যে ২য় স্থান, শ্রেষ্ঠ ক্লুলেস অপরাধ রহস্য উদঘাটন এবং জঙ্গি গ্রেফতারে প্রথম স্থান লাভ করে।

২০২১ সালে র‌্যাব-৪ সর্বমোট ৩২ টি অস্ত্র অভিযান পরিচালনা করে ৪৬ টি অস্ত্র, ৩৫১ রাউন্ড গুলি, ২৭ টি কার্তুজ উদ্ধারসহ ৫২ জন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করতে সমর্থ হয় যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলঃ মিরপুরের পীরেরবাগ ও সাভারের হেমায়েতপুর এলাকা হতে ৬ টি বিদেশী পিস্তল, ১২ টি ম্যাগাজিন, ৪৮ রাউন্ড গুলিসহ কুখ্যাত অস্ত্র ও মাদক ব্যবসায়ী সজিব কবিরাজসহ ৫ সদস্যকে গ্রেফতার। রাজধানীর শেরে বাংলা নগর এলাকার চিহিৃত চাঁদাবাজ ও অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী উজ্জল ও তার সহযোগীকে বিদেশী পিস্তলসহ গ্রেফতার। ঢাকা জেলার আশুলিয়ায় আলোচিত খাদেম নজরুলের পায়ের রগ কাটা মামলার প্রধান আসামী কিশোর গ্যাং ‘রাকিব গ্রুপ’ এর প্রধান রাকিব ও সহযোগী ইমনকে সাভার ও আশুলিয়া থেকে বিদেশী পিস্তল, দেশীয় অস্ত্র ও মাদকসহ গ্রেফতার। এ ছাড়াও রাজধানীর পল্লবী এলাকা হতে অস্ত্রধারী সস্ত্রাসী ও ১৮ মামলার আসামী আমিন’কে বিদেশী পিস্তলসহ গ্রেফতার।

২০২১ সালে র‌্যাব-৪ কর্তৃক সর্বমোট ৫৩৯ টি মাদক উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করে ৯ কেজি হেরোইন, ১৪২৯১ বোতল ফেন্সিডিল, ১৪১০১৭ পিস ইয়াবা, ১০৯২ কেজি গাঁজা, ১২৩৬৯ ক্যান বিয়ার, ১১৭৯ বোতল বিদেশি মদ ও ৬৭৩৯ লিটার দেশি মদসহ অন্যান্য মাদক উদ্ধার করেছে যেখানে মোট ৮৭৭ জন অপরাধীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বিগত ২০২১ সালে দেশের বিভিন্ন স্থানে র‌্যাব-৪ কর্তৃক সাড়াশি অভিযান পরিচালনা করে সর্বমোট ৪৭ জন শীর্ষ জঙ্গি গ্রেফতার করা হয় যার মধ্যে ছিলো দুইজন হিযবুত তাহরীর এবং ৪৫ জন আনসার আল ইসলাম এর সদস্য।

গত ২০২১ সালে ২০ টি চাঞ্চল্যকর ও ক্লুলেস হত্যাকান্ডের আসামী গ্রেফতারের অভিযান পরিচালনা করে ২৯ জন হত্যাকারীকে গ্রেফতার করে যার মধ্যে সাভারের অধ্যক্ষ মিন্টু চন্দন হত্যার রহস্য উদঘাটনপূর্বক ০৩ জন হত্যাকারী গ্রেফতার, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নীলফামারীর বিজিবি সদস্য হত্যার প্রধান আসামী, চাঞ্চল্যকর শাহীন উদ্দিন হত্যা, সাভারের ক্লুলেস ফাতিমা হত্যা রহস্য উদঘাটন, মানিকগঞ্জের সিংগাইরে অটোরিকশা চালক মাসুদ হত্যা মামলার আসামী গ্রেফতার, ১৯৯২ সালে চাঞ্চল্যকর ইব্রাহিম হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ২৯ বছর ধরে পলাতক আসামী গ্রেফতার উল্লেখযোগ্য। বিশেষভাবে উল্লেখ্য যে, সাভারের অধ্যক্ষ মিন্টু চন্দন হত্যার রহস্য উদঘাটন অভিযানটি ২০২১ সালে র‌্যাবের শ্রেষ্ঠ ক্লুলেস অভিযান হিসেবে পুরস্কার লাভ করে।

র‌্যাব-৪ গত ২০২১ সালে সর্বমোট ৪৩ টি অপহরণ সংক্রান্ত অভিযান পরিচালনা করে ৪৯ জন ভুক্তভোগী উদ্ধারের পাশাপাশি ৭৩ জন অপহরণকারীকে গ্রেফতার করতে সমর্থ হয় যার মধ্যে সাভারের ৪ বছরের অপহৃত শিশুকে মানিকগঞ্জের দুর্গমচর এলাকা হতে উদ্ধার, আশুলিয়ার ১২ বছরের শিশু আয়েশা অপহরণের ৬ ঘন্টা পর অপহরণকারীসহ শিশু উদ্ধার, আশুলিয়ার ৬ বছরের শিশু আলী হোসেন অপহরণের ৬ দিন পর চট্টগ্রাম হতে উদ্ধার উল্লেখযোগ্য।

মানবপাচার প্রতিরোধে র‌্যাব-৪ গত ২০২১ সালে ১৩ টি অভিযান পরিচালনা করে ৪০ জন মানব পাচারকারী গ্রেফতারসহ ৫২ জন ভুক্তভোগী উদ্ধার এবং কিছু কিছু প্রতারিত ভুক্তভোগীকে র‌্যাব-৪ এর উদ্যোগে দেশে ফেরত আনা সম্ভব হয়েছে। পার্শ্ববর্তী দেশে আলোচিত মা-মেয়েকে পাচারকারী চক্রের মূল হোতা কাল্লু-নাগিন-বিল্লাল’কে গ্রেফতার, মধ্যপ্রাচ্যে মানব পাচারকারী চক্রের মূলহোতা লিটন এবং ডিজে কামরুল ও নূরনবী চক্রকে গ্রেফতারসহ সেইফ হাউজ থেকে ২৩ জন ভুক্তভোগীকে উদ্ধার- র‌্যাব-৪ এর উল্লেখযোগ্য মানব পাচার সংশ্লিষ্ট অভিযান।

বিগত ২০২১ সালে র‌্যাব-৪ সর্বমোট ৮২ টি প্রতারণা সংশ্লিষ্ট অভিযান পরিচালনা করে ২৭৯ জন প্রতারক গ্রেফতার করে যার মধ্যে “ফাল্গুনী ডটকম”, “শিবপুর ক্ষুদ্র ঋণদান কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড”. “কর্ণফুলী মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ” এর মতো বেশ কিছু সফল অভিযান উল্লেখযোগ্য। জনস্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতকরণে, ভেজাল বিরোধী খাদ্যপণ্য ও নকল ঔষধ বিনষ্টিকরণে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে সর্বমোট ১০১ টি মোবাইলকোর্ট পরিচালনা করে প্রায় ২ কোটি টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

বিগত বছরের ন্যায় অদূর ভবিষ্যতেও র‌্যাব-৪ তার কর্মদক্ষতা দিয়ে জঙ্গি দমন, অস্ত্রসহ শীর্ষ সন্ত্রাসী গ্রেফতার, মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনাসহ চাঞ্চল্যকর ও ক্লুলেস হত্যার রহস্য উন্মোচন, ধর্ষণ, অপহরণ, চুরি ও ডাকাত গ্রেফফতারসহ জনকল্যাণমূলক কর্মসূচী বাস্তবায়নের অগ্রণী ভুমিকা অব্যাহত রাখবে।

Print Friendly, PDF & Email
Comments
Share

bangladesh ekattor

বাংলাদেশ একাত্তর.কম

Reply your comment

Your email address will not be published. Required fields are marked*

বাংলাদেশ একাত্তর