অন্যান্য, বিনোদন, রাজনীতি, শিল্প ও সাহিত্য

মৌসুমী, শাবনূর ও পূর্ণিমার সমালোচনায় নাসরিন

%e0%a6%ae%e0%a7%8c%e0%a6%b8%e0%a7%81%e0%a6%ae%e0%a7%80-%e0%a6%b6%e0%a6%be%e0%a6%ac%e0%a6%a8%e0%a7%82%e0%a6%b0-%e0%a6%93-%e0%a6%aa%e0%a7%82%e0%a6%b0%e0%a7%8d%e0%a6%a3%e0%a6%bf%e0%a6%ae%e0%a6%be

দিলদারের নায়িকা হিসেবে সবাই চিনত আর এর কারণে অনেকে তাকে কাজে নিত না বলে দাবি করেছেন চলচ্চিত্র অভিনেত্রী নাসরিন। তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে অভিনয় করছেন তিনি। নায়িকা হিসেবে প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন নিয়ে চলচ্চিত্রে এলেও পার্শ্ব চরিত্রেই তিনি জনপ্রিয়তা পেয়েছেন। মনের মধ্যে থেকে গেছে নায়িকা না হতে পারার আক্ষেপ। সেই আক্ষেপের কথাই নাসরিন জানালেন শাহরিয়ার নাজিম জয়ের উপস্থাপনায় এটিএন বাংলার ‘সেন্স অব হিউমার’ অনুষ্ঠানে।

সদ্য প্রচার হওয়া এই অনুষ্ঠানে নাসরিন হাজির ছিলেন অতিথি হিসেবে। সেখানে তিনি আরও বলেন, ‘দিলদার ভাইয়ের সঙ্গে আমার অনেক কাজ করা হয়েছে। যার ফলে অনেকেই আমাকে দিলদারের নায়িকা হিসেবে ডাকত, যেটা আমার ক্যারিয়ারের জন্য বাজে ছিল। কেননা দিলদারের নায়িকা হিসেবে ডাকার কারণে অনেক ডিরেক্টর আমাকে কাজ দিত না। শুধু তাই নয়, এখনো আমি রাস্তায় বের হলে মানুষ বলে ওই যে দিলদারের নায়িকা। আমি কিন্তু দিলদারের জন্য পরিচিত না, জনপ্রিয় হইনি। বরং আমার সঙ্গে জুটি বেঁধে দিলদার ভাইয়ের লাভ হয়েছে।’

মৌসুমী, শাবনূররা নাসরিনকে সিনেমায় গুরুত্বহীনভাবে উপস্থাপন করতে চেষ্টা করতেন দাবি করে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘মৌসুমী, শাবনুরের সঙ্গে আমি থাকলে অনেক সময় আমার ক্লোজ আপ থাকত না। শুধু তাই নয়, অনেক সময় তারা পরিচালক বা লাইটম্যানদের বলত লাইট অন্যরকম করে দিতে। এসব নিয়ে অনেক কষ্ট পেয়েছি। মেকাপ রুমে অনেক কেঁদেছি। কেউ শুনতেও চায়নি সেসব গল্প কোনোদিন।’

নায়িকা হবার পেছনে পূর্ণিমাকে অনেক সাহায্য করেও তার কাছ থেকে কষ্ট পেয়েছেন দাবি করে নাসরিন বলেন, ‘আজকের নায়িকা পূর্ণিমা তৈরি হয়েছে শুধু আমার জন্য। নায়িকা পূর্ণিমা অনেক সময়ই বলেছে আমি থাকলে সে কাজ করবে না।’ নায়করাজ রাজ্জাক তাকে নায়িকা বানাতে চেয়েছিলেন। বাপ্পারাজের বিপরীতে কাজল নামে এক নায়িকাকে নেয়ার কথা ছিল রাজ্জাকের পরিচালিত একটি ছবিতে। কিন্তু শুটিংয়ের আগে তার বাবা মারা গেলে তার বদলে নাসরিনকে নিতে চেয়েছিলেন রাজ্জাক। কিন্ত নাসরিন রাজি হননি।

তিনি বলেন, ‘আমি রাজি হইনি কারণ তখন ওই মেয়েটির বাবা মারা গেছে। এমনিতেই মন ভালো ছিল না, এর মাঝে যদি এসে দেখত যে কাজটাও ছুটে গেছে তাহলে তো আরও কষ্ট পেত। এভাবে অনেকের জন্য আমি অনেক ছাড় দিয়েছি। কিন্তু আমি কারও সাহায্য পাইনি। কাউকে আমি পাশে পাইনি। কোনো নায়িকা আমাকে সমর্থন দেননি। অথচ অনেক জনপ্রিয় নায়িকাই আমার কাছে নাচ শিখেছে। এমন অনেক নায়িকা আছে যারা নাচ পারত না। আমি তাদের নাচ শিখিয়ে পরে শর্ট দিতে পাঠিয়েছি।’

‘পুরো ক্যারিয়ারজুড়ে সবাই আমাকে ব্যবহার করেছে’ এমন মন্তব্য করেন নাসরিন। jagonews24

Print Friendly, PDF & Email
Comments
Share

bangladesh ekattor

বাংলাদেশ একাত্তর.কম

Reply your comment

Your email address will not be published. Required fields are marked*

12 + 5 =

বাংলাদেশ একাত্তর