মঙ্গলবার , ২৩ মে ২০২৩ | ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আওয়ামীলীগ
  4. আন্তর্জাতিক
  5. খেলাধুলা
  6. জাতীয়
  7. তথ্য-প্রযুক্তি
  8. ধর্ম
  9. বি এন পি
  10. বিনোদন
  11. বিশেষ সংবাদ
  12. রাজধানী
  13. লাইফস্টাইল
  14. শিক্ষা
  15. শিল্প ও সাহিত্য

তাকসিম বাংলাদেশের সর্বকালের সেরা ক্ষমতাবান অফিসার

প্রতিবেদক
bangladesh ekattor
মে ২৩, ২০২৩ ৬:০০ অপরাহ্ণ

তাকসিমের বিরুদ্ধে কথা বললেই বিপদ যার জেরে চেয়ারম্যান বরখাস্ত। তাকসিম বাংলাদেশের সর্বকালের সেরা ক্ষমতাবান অফিসার:

বাংলাদেশ একাত্তর.কম/রাজু আহমেদ:

বিভিন্ন সময় আমরা বাংলা সিনেমা, টিভি, নাটক বা সিরিয়াল শো-তে দেখি। ক্ষমতাসীন কারো বিরুদ্ধে অভিযোগ করলে উল্টো অভিযোগকারীকেই বিপদে পড়তে হয়। বাস্তবে ঢাকা ওয়াসার চেয়ারম্যানের বেলায় ঘটেছে তেমন। ওয়াসার এমডির বিরুদ্ধে অভিযোগ করায় সরিয়ে দেওয়া হলো চেয়ারম্যানকে।

সম্প্রতি ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) তাকসিম এ খানের বিরুদ্ধে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে মুখ খোলেন সংস্থাটির চেয়ারম্যান প্রকৌশলী ড. গোলাম মোস্তফা। চলমান এ টানাপোড়েনের মধ্যেই সোমবার স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে একটি প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে বর্তমান চেয়ারম্যান ড. গোলাম মোস্তফাকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে বোর্ড সদস্য সুজিত কুমার বালাকে চেয়ারম্যান করা হয়েছে বলেও প্রজ্ঞাপনে বলা হয়। স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব মো. আকবর হোসেন স্বাক্ষরিত চিঠিতে এ আদেশ জারি করেন।

সূত্র জানায়, ওয়াসার বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে এমডি তাকসিম এ খানের বিরুদ্ধে সম্প্রতি স্থানীয় সরকার বিভাগে অভিযোগ দেন বর্তমান চেয়ারম্যান প্রকৌশলী ড. গোলাম মোস্তফা। এরপরই তাকসিম এ খান চেয়ারম্যানকে জড়িয়ে নানা অভিযোগ তুলে মন্ত্রণালয়ে পত্র দেন। বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমে বিস্তারিত কথা বলেন উভয়পক্ষই। দীর্ঘ সময় ধরে ঢাকা ওয়াসার নির্বাহী প্রধানের চেয়ারে অবস্থান করে কার্যত ওয়াসা বোর্ডকে অকার্যকর করে রাখার যে চেষ্টা তাই উঠে আসে প্রকৌশলী গোলাম মোস্তফার অভিযোগে। এসব অভিযোগ মন্ত্রণালয় তদন্ত করার আগেই অভিযোগকারী চেয়ারম্যান কে সরিয়ে দেওয়া হলো।

এ খবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে নেটিজেনরা ওয়াসার এমডি তাসকিম খানকে ধুয়ে দেন। তাকসিম বাংলাদেশের সর্বকালের সেরা ক্ষমতাবান অফিসার। তাকসিমের ক্ষমতার খুটির জোর কোথায়। চেয়ারম্যানের অভিযোগ তদন্তের আগেই তাকে সরিয়ে দেওয়া হলো কেন।

সূত্র জানায়, আগামী অক্টোবর পর্যন্ত চেয়ারম্যান পদে থাকার কথা ছিল গোলাম মোস্তফার। এ মেয়াদের আগেও ২০০৯-১২ মেয়াদে ঢাকা ওয়াসার চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন গোলাম মোস্তফা।

এ বিষয়ে কথা বলার জন্য প্রকৌশলী গোলাম মোস্তফার মোবাইল ফোনে কল করা হলে তিনি ধরেননি।

ড. গোলাম মোস্তফাকে সরিয়ে দেওয়ার বিষয়ে কথা বলার জন্য স্থানীয় সরকার বিভাগে অতিরিক্ত সচিব (পানি সরবরাহ) মো. খায়রুল ইসলাম, যুগ্ম সচিব জসিম উদ্দিন (পানি সরবরাহ) ও উপসচিব (পানি সরবরাহ) মো. আকবর হোসেনের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল করা হলে কেউ ধরেননি।

 

সর্বশেষ - অন্যান্য