আইন ও আদালত, জাতীয়, বিশেষ সংবাদ, রাজধানী

মাফিয়া খ্যাত ট্রেড লাইসেন্স শাখার সুপার ভাইজার’কে ডিএনসিসিতে তলব’

%e0%a6%97%e0%a7%81%e0%a6%a8%e0%a7%8d%e0%a6%a1%e0%a6%be%e0%a6%95%e0%a7%8d%e0%a6%b7%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%be%e0%a6%a4-%e0%a6%9f%e0%a7%8d%e0%a6%b0%e0%a7%87%e0%a6%a1-%e0%a6%b2%e0%a6%be%e0%a6%87%e0%a6%b8

মাফিয়া খ্যাত ট্রেড লাইসেন্স শাখার (কর্মকর্তা) সুপার ভাইজার কে দুই সেবা প্রার্থীকে পিটানোর ঘটনায় ডিএনসিসিতে তলব করেছেন।

বাংলাদেশ একাত্তর.কম/মিরপুর প্রতিনিধি;

বিষয়; ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন অঞ্চল ৪ এর রাজস্ব বিভাগের ট্রেড লাইসেন্স শাখার সুপার ভাইজার মাহমুদুল হাসান রোকন এর বিরুদ্ধে এশিয়ান টিভির প্রতিনিধি কর্তৃক দাখিলকৃত “সেবা প্রার্থীকে পিটালেন শ্রমিক কর্মচারী লীগের সাধারণ সম্পাদক” শীর্ষক অভিযোগ প্রসঙ্গে তলব করা হয়েছে।

শুনানির দিন আগামী ২৬ এপ্রিল ধার্য্য করেছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি)র এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট পারসিয়া সুলতানা প্রিয়াংকা।,

উল্লেখ, গত ২৯ মার্চ
মঙ্গলবার ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) অঞ্চল-৪ ট্রেড লাইসেন্স শাখায় ফি জানতে চাওয়ায় এশিয়ান টিভির এক সাংবাদিক সাদ্দাম হোসেন মুন্নাকে পিটিয়েছে ডিএনসিসির শ্রমিক-কর্মচারী লীগের সাধারণ সম্পাদক। ঘটনার দিন দুপুরে সাদ্দাম হোসেন মুন্না ও তার বন্ধুকে নিয়ে সুপারভাইজার রোকনের কক্ষে যান। ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জন্য নতুন ট্রেড লাইসেন্সের ফি’র ব্যাপারে জানতে চান।

রোকন মুন্নার কাছে ট্রেড লাইসেন্সের জন্য মোট ১৫ হাজার টাকা দাবি করলে ট্রেড লাইসেন্স করতে এত টাকা কেন লাগে প্রশ্ন করলে রোকন ক্ষিপ্ত হয়ে খারাপ আচরণ শুরু করেন। এরপর মুন্না নিজেদের সংবাদকর্মী পরিচয় দিলে রোকন আরো ক্ষিপ্ত হয়ে মুন্না ও লিমনের ওপর চড়াও হন। আর সাংবাদিক পেশা নিয়ে অপমানজনক কথা বলেন।, একপর্যায়ে সিটি কর্পোরেশনের মেইন গেট বন্ধ করে ইউনিয়নের কর্মীদের ডেকে অফিসের ভিতর তাদের পিটেয়ে তাদের সাথে থাকা ৩০,৮৮৫ টাকা নিয়ে যান।

ওই কর্মকর্তা রোকন সাংবাদিকদের সাথে খারাপ আচরণ, গালমন্দ ও মারমুখী ভঙ্গিতে লিপ্ত হন” এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার সৃষ্টি হয়। এতে নেটিজেনরা মন্তব্য করেন মাফিয়া খ্যাত সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা ও শ্রমিক কর্মচারী লীগের সাধারণ সম্পাদকের শাস্তির দাবি জানান।

এ ঘটনায় সেবাপ্রার্থী ও সাংবাদিক সাদ্দাম হোসেন মুন্না ডিএনসিসি অঞ্চল-৪ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দেন।

এরই ধারাবাহিকতায় আগামী ২৬ এপ্রিল ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি)র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পারসিয়া সুলতানা প্রিয়াংকা অভিযোগ প্রসঙ্গে শুনানির দিন ধার্য্য করেন।

অন্যন্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা এই শ্রমিক কর্মচারী লীগের সাধারণ সম্পাদক কে গুন্ডাক্ষ্যাত নামেই জানে। তার অন্যায়ের বিরুদ্ধে ডিএনসিসি অঞ্চল ৪ এর কোনো কর্মকর্তা ও কর্মচারী প্রতিবাদ করতে সাহস করেনা। কথায় কথায় সে নিজেকে ছাত্রলীগ নেতা ও একাধিক আমপাবলিক সংগঠনের নেতা দাবি করে হুড়মুড়ে চলে। বিশস্ত সুত্র বলছে, রোকন সিটি কর্পোরেশনের ট্রেড লাইসেন্স শাখার সুপার ভাইজার ও শ্রমিক কর্মচারী লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদপদবির জোর খাটিয়ে অনৈতিক সুবিধা নিয়ে কোটি কোটি টাকার মালিক বনে গেছে।

Print Friendly, PDF & Email
Comments
Share

bangladesh ekattor

বাংলাদেশ একাত্তর.কম

Reply your comment

Your email address will not be published. Required fields are marked*

five × 4 =

বাংলাদেশ একাত্তর