আন্তর্জাতিক

কোচবিহার সীমান্তে গরু পাচারকারীদের তাণ্ডব, বন্দুক কেড়ে গুলি করল বিএসএফ জওয়ানকে

%e0%a6%95%e0%a7%8b%e0%a6%9a%e0%a6%ac%e0%a6%bf%e0%a6%b9%e0%a6%be%e0%a6%b0-%e0%a6%b8%e0%a7%80%e0%a6%ae%e0%a6%be%e0%a6%a8%e0%a7%8d%e0%a6%a4%e0%a7%87-%e0%a6%97%e0%a6%b0%e0%a7%81-%e0%a6%aa%e0%a6%be

BSF কন্সটেবলের অস্ত্র কেড়ে নিয়ে তাঁকেই গুলি করে হত্যা করেছে গরু পাচারকারীরা | ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন BSF ও পুলিশের একাধিক পদস্থ আধিকারিক |

বৃহস্পতিবার ভোররাতে কোচবিহার জেলার দিনহাটার উলকানগর সীমান্তে গাছের সঙ্গে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার হয় বিএসএফ জওয়ান অরবিন্দ কুমারের দেহ। দেহে ছিল গুলির চিহ্ন। রাতে তাঁর দেহ দেখতে পান অন্য জওয়ানরা। দেহ উদ্ধার করে আনা হয় বিএসএফ ক্যাম্পে। এর পরই ঘটনার তদন্তে নামে বিএসএফ ও পুলিস।

জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার ভোররাতে সীমান্তে টহলদারির সময় BSF কর্মী অরবিন্দ কুমার কে ঘিরে ধরে গরু পাচারকারীরা | এরপর BSF কর্মীর সঙ্গে থাকা আগ্নেয়াস্ত্র কেড়ে নিয়ে তাকে একটি গাছে বেঁধে রাখে কিছু স্থানীয় মানুষ ও বহিরাগত পাচারকারীরা | এরপর অরবিন্দর থেকে কেড়ে নেওয়া অস্ত্র নিয়ে দুষ্কৃতীরা তাঁকেই গুলি করে| ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় অরবিন্দ কুমারের | রাতেই  হাত-পা বাধা অবস্থায় অরবিন্দ কুমারের দেহ পরে থাকতে দেখে BSF এর অন্য জওয়ানরা |এই খবর পাওয়ার পরই তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছন BSF-এর DIG সিএল বেলওয়া  ও কোচবিহারের পুলিশ সুপার ভোলানাথ পাণ্ডে-সহ অন্যান্য পুলিশের আধিকারিকরা  | জানা গিয়েছে অরবিন্দ কুমার BSF-এর ৪২ নং ব্যাটেলিয়ানের কনস্টেবল | তার বাড়ি উত্তরপ্রদেশের উন্নাও জেলায় | গতকাল রাতে দিনহাটার বামনহাটের উল্কানগর সীমান্তে পাহারায় ছিলেন অরবিন্দ | গরু পাচারকারীদের বাধা দিতে এগিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। সেই পাচারকারীদের হাতেই শহিদ হলেন তিনি।

সংগ্রহীত

Print Friendly, PDF & Email
Comments
Share

bangladesh ekattor

বাংলাদেশ একাত্তর.কম

Reply your comment

Your email address will not be published. Required fields are marked*

বাংলাদেশ একাত্তর