রাজনীতি

সলুকাবাদ ইউপির চেয়ারম্যান তপনের জানা-অজানা কিছু কথা

%e0%a6%b8%e0%a6%b2%e0%a7%81%e0%a6%95%e0%a6%be%e0%a6%ac%e0%a6%be%e0%a6%a6-%e0%a6%87%e0%a6%89%e0%a6%aa%e0%a6%bf%e0%a6%b0-%e0%a6%9a%e0%a7%87%e0%a7%9f%e0%a6%be%e0%a6%b0%e0%a6%ae%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%be

আজিজুল ইসলামঃ (সুনামগঞ্জ)

মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য, একটু  সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারেনা, ও বন্ধু মানুষ মানুষের জন্য। এই গানটি শুনলেই মানুষের প্রতি মানুষের প্রেম ভালোবাসার প্রত্যয় বাড়ে। সেই মানব সেবাই পরম ধর্ম যার উদাহরণ চেয়ারম্যান নুরে আলম সিদ্দিকী তপন।

সুনামগঞ্জ জেলার বিশম্ভরপুর উপজেলার সুলকাবাদ ইউনিয়নের বর্তমান সু-যোগ্য চেয়ারম্যান নুরে আলম সিদ্দিকী তপনের সাথে একান্ত আলাপ কালে উঠে আসে তার বিগতদিনের অজানা কিছু কথা ও সমাজসেবা মুলুক কর্মকান্ড ও রাজনীতিতে বেড়ে উঠার গল্প। তিনি ১৯৯২ সালে রাজনীতিতে পা রাখেন এবং ১৯৯৩ সালে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করা হয়। সেসময় তিনি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়। ছাত্রলীগে থাকা অবস্থায় ১৯৯৫ সালে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে যোগদান করেন। দীর্ঘ ২২ বছর সেনাবাহিনীতে কর্মরত ছিলেন। অবসরে আসার পর তিনি দেখলেন সাধারণ মানুষ অনেক সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত। তিনি বলেন কিছুদিন পরে হঠাৎ আমাদের ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জনাব রওশন আলী মারা যান তখন এলাকার সাধারণ মানুষের আহ্বানে রাজনীতিতে যোগদান করা। তিনি আরো বলেন আমি জননেত্রী শেখ হাসিনার নৌকা প্রতি পেয়ে নির্বাচন করি এবং আমি জনগণের অসীম ভালোবাসায় নির্বাচিত হই। নির্বাচিত হয়ে ইউনিয়নের সুবিধা বঞ্চিত ও অবহেলিত মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছি। কতটা দিতে পেরেছি তা আমার ইউনিয়ন বাসীরাই ভালো বলতে পারবে।

আপনি চেয়ারম্যান হিসেবে নিজেকে কতটুকু সফল মনে করেন- প্রতিবেদকের এমন প্রশ্নে ? তিনি বলেন আমি চেয়ারম্যান হয়েছি এটা আমার সবচেয়ে বড় পাওয়া, কেননা চারজন পার্থীর মধ্য  থেকে জনগণ আমাকে নির্বাচিত করেছেন। তাছাড়া আমাদের পরিবারের মধ্যে আমিই চেয়ারম্যান হয়েছি, আরও ভালো লাগে সাধারণ জনগণের প্রতিনিধি হয়ে সেবা করতে পেরে।

Print Friendly, PDF & Email
Comments
Share

bangladesh ekattor

বাংলাদেশ একাত্তর.কম

Reply your comment

Your email address will not be published. Required fields are marked*

five × 1 =

বাংলাদেশ একাত্তর