আওয়ামীলীগ

মিরপুরে বালুর ব্যবসা নিয়ন্ত্রনে দুগ্রুপের সংঘর্ষ

%e0%a6%ae%e0%a6%bf%e0%a6%b0%e0%a6%aa%e0%a7%81%e0%a6%b0%e0%a7%87-%e0%a6%ac%e0%a6%be%e0%a6%b2%e0%a7%81%e0%a6%b0-%e0%a6%ac%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%ac%e0%a6%b8%e0%a6%be-%e0%a6%a8%e0%a6%bf%e0%a7%9f

সুমন আহমেদঃ

দারুস সালাম থানার সামনে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের দুগ্রুপের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ। আহত একাধিক।

রাজধানীর মিরপুর দারুস সালাম থানার সামনে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়েছে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের দুটি গ্রুপ। বুধবার বিকাল সাড়ে ৫ টায় দারুস সালাম থানার কয়েক’শ গজ (দারুসসালাম জোন এসি’র কার্যালয়ের) সামনে ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান দারুসসালাম থানা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ইসলাম গ্রুপ ও কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা নাবিল খান গ্রুপ এর মধ্যে বালুর ব্যবসাকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন বিরোধ চলছিলো। এ নিয়ে প্রায় সময় দু’গ্রুপের মধ্যে দখল পাল্টা দখলের ঘটনা ঘটতো।

বুধবার বিকালে দু গ্রুপের ৫ শতাধিক সদস্য নিজেদের মধ্যে রামদা ,হকিস্টিক, বাঁশ ,লাঠি , ইট পাটকেল, দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে তারা। এতে অনেক হতাহত হয়। ঘটনাস্থালে পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত থাকলেও তারা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নিতে পারেননি।

স্থানীয় বাসিন্দা ও সাবেক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মুরাদ হোসেন বলেন দীর্ঘদিন ধরে ইট বালুর এ ব্যবসাটি আমার ছিলো। স্বেচ্ছাসেব লীগের ইসলাম কিছুদিন আগে আমার কাছ থেকে জোর করে এ ব্যবসা ছিনিয়ে নেয়। আজ আবার আমার লোকদের উপর হামলা করেছে। দারুসসালাম থানার ফাঁড়ির ইনচার্জ শারিফুজ্জামান বলেন আমরা পরে ঘটনাস্থলে গিয়েছি। ইট পাটকেল নিয়ে দুগ্রুপের সংঘর্ষ হয়েছে। ২০ মিনিটের মতো। হতাহতের সংখ্যা পরে বলতে পারবো।

জানাগেছে এ ঘটনায় দুগ্রুপের ২৪ জনকে আটক করা হয়েছে। 

Print Friendly, PDF & Email
Comments
Share

bangladesh ekattor

বাংলাদেশ একাত্তর.কম

Reply your comment

Your email address will not be published. Required fields are marked*

12 + 9 =

বাংলাদেশ একাত্তর