শুক্রবার , ১৯ জানুয়ারি ২০১৮ | ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আওয়ামীলীগ
  4. আন্তর্জাতিক
  5. খেলাধুলা
  6. জাতীয়
  7. তথ্য-প্রযুক্তি
  8. ধর্ম
  9. বি এন পি
  10. বিনোদন
  11. বিশেষ সংবাদ
  12. রাজধানী
  13. লাইফস্টাইল
  14. শিক্ষা
  15. শিল্প ও সাহিত্য

হাঁচি চাপার চেষ্টা করতেই ছিড়ে গেল গলার পেশী !

প্রতিবেদক
bangladesh ekattor
জানুয়ারি ১৯, ২০১৮ ৯:৩৩ পূর্বাহ্ণ

হাচি চাপাতে গিয়ে সম্প্রতি বিপদ ঘটিয়েছেন ইল্যান্ডের লেস্টারে বসবাসরত এক ব্যক্তি। হাঁচি আটকে রাখার চেষ্টা করতেই ছিড়ে যায় তার গলার পেশী। এমন ঘটনার পর চিকিৎসকরা সবাইকে এ ধরনের কাণ্ড থেকে সতর্ক থাকতে বরেছেন। তারা বলছেন, এরকম চেষ্টা করলে যে কারও গলা,কান- এমনকি মস্তিষ্কেরও মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে।

চৌত্রিশ বছর বয়স্ক ওই ব্যক্তির নাম প্রকাশ করা হয় নি । জানা গিয়েছে, প্রচণ্ড জোরে হাঁচি আসার কারণে তিনি নাক-মুখ চেপে ধরেছিলেন। আর সেটা এতটাই জোরে ছিল যে তার গলার ভেতরের নরম টিস্যু ছিঁড়ে যায়।

চিকিৎসকরার অবশ্য বলেছেন, এমন ঘটনা খুবই বিরল। কিছুটা অস্বাভাবিকও। তবে এ ধরনের ঘটনা যাতে আর কারও ক্ষেত্রে না ঘটে সে ব্যাপারে সবার সতর্ক থাকা উচিত।

ব্রিটিশ মেডিক্যাল জার্নালে প্রকাশিত এক রিপোর্টে চিকিৎসকরা বলছেন,এরকম চেষ্টা করলে কানের ক্ষতি হতে পারে,এমনকি মস্তিষ্কের রক্ত সংবহনকারী কোন শিরা আগে থেকেই দুর্বল হয়ে গিয়ে থাকলে তা ফেটে যেতে পারে।

আক্রান্ত লোকটি চিকিৎসকদের বলেন,তিনি যখন হাঁচি আটকে রাখার চেষ্টা করেছিলেন তখন তার ঘাড়ে কট করে একটা শব্দ হয়। তখনই তিনি বুঝতে পারেন , তার গলায় ব্যথা হচ্ছে এবং কোন কিছু গিলতে বা কথা বলতে কষ্ট হচ্ছে। দ্রুতই তিনি চিকিৎসকের শরনাপন্ন হন। ডাক্তাররা পরীক্ষা করে দেখেন তার গলা এবং ঘাড় ফুলে গেছে,টিস্যুগুলো স্পর্শকাতর হয়ে গেছে।

আর এক্সরে রিপোর্টে দেখা যায়, আক্রান্ত লোকটির শ্বাসনালী ফেটে গেছে এবং শ্বাস নেওয়ার সময় তা দিয়ে বাতাস বেরিয়ে তার গলার নরম পেশীতে এসে লাগছে।

আক্রান্ত ব্যক্তিকে এরপর সাতদিন হাসপাতালে থাকতে হয়। যতক্ষন না শ্বাসনালীর টিস্যু আপনাআপনি জোড়া না লাগে ততদিন পর্যন্ত তার গলার ভিতরে নল ঢুকিয়ে খাবার সরবরাহ করা হয়।

এ ঘটনার পর লেস্টার রয়াল ইনফার্মারির নাক-কান-গলা বিশেষজ্ঞরা বলছেন,নাক-মুখ বন্ধ করে হাঁচি ঠেকানোর চেষ্টা খুবই বিপজ্জনক, এতে নানা বিপদ হতে পারে। তাই এটা করা ঠিক নয়। বরং এরকম পরিস্থিতিতে উচিত কাপড় দিয়ে মুখ ঢেকে হাঁচি দেয়া।

সূত্র : বিবিসি

সর্বশেষ - অন্যান্য

আপনার জন্য নির্বাচিত