রাজনীতি

গণপিটুনিতে বিএনপি-জামায়াত জড়িত বলে সন্দেহ আইনমন্ত্রীর

%e0%a6%97%e0%a6%a3%e0%a6%aa%e0%a6%bf%e0%a6%9f%e0%a7%81%e0%a6%a8%e0%a6%bf%e0%a6%a4%e0%a7%87-%e0%a6%ac%e0%a6%bf%e0%a6%8f%e0%a6%a8%e0%a6%aa%e0%a6%bf-%e0%a6%9c%e0%a6%be%e0%a6%ae%e0%a6%be%e0%a7%9f%e0%a6%be

অনলাইন ডেস্কঃ
গণপিটুনি দিয়ে নিরাপরাধ মানুষ হত্যায় বিএনপি-জামায়াতের যোগসাজশ রয়েছে বলে সন্দেহ করছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তিনি বলেছেন, গণপিটুনি, ধর্ষণ, বিল্ডিংয়ে আগুন লাগার ঘটনা নিছক দুর্ঘটনা নয়। এক স্থানে এসব হলে ১০ স্থানে হয়। এসব বিএনপি-জামায়াতের নিখুঁত কাজের উদাহরণ।

সোমবার দুপুরে নেত্রকোণা জেলা আইনজীবী সমিতির নবনির্মিত ভবন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, কিছু দিন আগে পদ্মা সেতুতে মাথা লাগবে দেশে এ ধরনের একটি গুজব ছড়িয়েছিল। আর এই গুজবের কারণে দেশের বিভিন্ন জায়গায় গণপিটুনিতে হতাহতের ঘটনা ঘটছে।

দেশবাসীর উদ্দেশ্য তিনি বলেন, আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে। কোথাও কোনো অপরাধ সংগঠিত হলে অপরাধীকে পুলিশে দিতে হবে। কিন্তু আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়া যাবে না। যারা আইন নিজের হাতে তুলে নেবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এরপর মন্ত্রী আইনজীবীদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় অংশ নেন।

সমিতির সভাপতি আইনজীবী সিতাংশু বিকাশ আচার্য্যের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আমিনুল হক খান মুকুলের পরিচালনায় মতবিনিময়ে অংশ নেন সংসদ সদস্য অসীম কুমার উকিল (নেত্রকোণা ৩), সংরক্ষিত মহিলা আসনের হাবীবা রহমান খান শেফালী, জেলা ও দায়রা জজ আবু মো. আমিমুল এহসান, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান, আইন-বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্ন সচিব বিকাশ কুমার সাহা, জেলা প্রশাসক (ডিসি) মঈনউল ইসলাম, পুলিশ সুপার (এসপি) জয়দেব চৌধুরী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. শাহ্জাহান মিয়া প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email
Comments
Share

bangladesh ekattor

বাংলাদেশ একাত্তর.কম

Reply your comment

Your email address will not be published. Required fields are marked*

fifteen + seven =

বাংলাদেশ একাত্তর