শনিবার , ৪ মার্চ ২০২৩ | ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আওয়ামীলীগ
  4. আন্তর্জাতিক
  5. খেলাধুলা
  6. জাতীয়
  7. তথ্য-প্রযুক্তি
  8. ধর্ম
  9. বি এন পি
  10. বিনোদন
  11. বিশেষ সংবাদ
  12. রাজধানী
  13. লাইফস্টাইল
  14. শিক্ষা
  15. শিল্প ও সাহিত্য

নবজাতক শিশু অপহরণের পর মুক্তিপণ দাবী; গ্রেফতার-২

প্রতিবেদক
bangladesh ekattor
মার্চ ৪, ২০২৩ ৬:২৪ অপরাহ্ণ

আলোচিত ঢাকা জেলার ধামরাইয়ে ৭ দিনের নবজাতক শিশুকে অপহরণের পর মুক্তিপণ দাবির ঘটনায় জড়িত যশোরের অভয়নগর এলাকা হতে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব; নবজাতক শিশু উদ্ধার;

বাংলাদেশ একাত্তর.কম; নিজেস্ব প্রতিবেদক:

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ তারিখ রাত ৮ ঘটিকার সময় ঢাকা জেলার ধামরাইয়ের ঢুলিভিটা এলাকায় মিলি আক্তার নামের এক নারীর বাসায় পরিচিত রুবেল ও তার স্ত্রী দেখা করতে আসলে তাদের নিকট তার ৭ দিনের নবজাতক ছেলেকে রেখে ঔষধ ক্রয়ের উদ্দেশ্যে ভিকটিমের মা বাসা থেকে বের হয়।

পরবর্তীতে ২০ মিনিট পর মিলি আক্তার বাসায় ফিরে এসে নবজাতক শিশুসহ রুবেলকে না পেয়ে সারা রাত পাশর্বর্তী বিভিন্ন স্থানে তাদের সন্ধান করে। পরদিন ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ তারিখ ঢুলিভিটা বাজার কমিটির কাছ থেকে রুবেল এর বাসার ঠিকানা নিয়ে বাসায় গেলে বাসা তালাবদ্ধ দেখতে পায় এবং একই সাথে তাদের মোবাইল ফোন বন্ধ পায়। গত ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ তারিখ রুবেল মোবাইল ফোন চালু করে নবজাতক শিশুকে নেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে মোবাইল বন্ধ করে দেয়। পরবর্তীতে ১ মার্চ ২০২৩ তারিখে রুবেল অন্য একটি নাম্বার দিয়ে ভুক্তভোগী মিলি আক্তারকে ফোন করে জানায় নবজাতক ফিরিয়ে দেয়ার জন্য ১ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে এবং মুক্তিপণের টাকা না দিলে নবজাতককে মেরে ফেলারও হুমকি দেয়। ভুক্তভোগী মিলি আক্তার তার নবজাতক শিশুকে ফিরে পেতে র‌্যাব-৪ এর সহায়তা চেয়ে উক্ত বিষয়ে অভিযোগ দাখিল করেন।

ফলশ্রুতিতে র‌্যাব অপহরণকৃত নবজাতক শিশুটিকে উদ্ধারসহ অপহরণকারীদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে গোয়েন্দা নজরদারী বৃদ্ধি করে। এরই ধারাবাহিকতায় গত রাতে র‌্যাব-৪ এর একটি আভিযানিক দল যশোর জেলার অভয়নগর থানাধীন আমতলা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে অপহরণকারী দম্পতি মোঃ রুবেল শেখ (৩৫), পিতাঃ মৃত আব্দুল মজিদ শেখ এবং তানিয়া আফরোজ (২৩), স্বামী-রুবেল দিঘলীয়া, খুলনাদের’কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। উদ্ধার করা হয় অপহৃত ৭ দিনের নবজাতক শিশুটিকে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা বর্ণিত অপহরণের ঘটনায় তাদের সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে তথ্য প্রদান করে। এছাড়াও জানা যায় যে, ভুক্তভোগী মিলি আক্তার কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার পাঠানপাড়া এলাকার বাসিন্দা। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ধামরাইয়ের ঢুলিভিটা এলাকার বিভিন্ন বাসা বাড়িতে গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করে আসছিলেন। ঢুলিভিটা বাজারের পাশে থাকার কারণে একই এলাকার ভাড়াটিয়া রুবেল ও তার স্ত্রীর সাথে তার পরিচয় হয় এবং তাদের মধ্যে সু-সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গ্রেফতারকৃত রুবেল মিলি আক্তারকে ফুফু বলে ডাকত। তিনি গত ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ তারিখে ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একটি ছেলে সন্তানের জন্ম দেন।

গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

সর্বশেষ - অন্যান্য