NEWS, অন্যান্য, আইন ও আদালত, নারী, প্রবাসী জীবন, রাজনীতি

রূপনগরে ধর্ষণ করে বিদেশ পলাতক আতিক

%e0%a6%b0%e0%a7%82%e0%a6%aa%e0%a6%a8%e0%a6%97%e0%a6%b0%e0%a7%87-%e0%a6%a7%e0%a6%b0%e0%a7%8d%e0%a6%b7%e0%a6%a3-%e0%a6%95%e0%a6%b0%e0%a7%87-%e0%a6%ac%e0%a6%bf%e0%a6%a6%e0%a7%87%e0%a6%b6-%e0%a6%aa

ধর্ষণ যেন দেশে একটি মারাত্মক ব্যাধি।পত্র পত্রিকা খুলে বসলেই চোখের সামনেই পড়ে শিশু ধর্ষণ থেকে শুরু করে ৬০ বছরের বৃদ্ধা জরিনাও রেহাই পায়না। অপরাধীরা অপরাধ করে আইনের ফাকফোকর দিয়ে বেড়িয়ে আসছে বলেই কি অপরাধ দমানো সম্ভব নয়?

না-কি প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষরিত এই নুতন আইনে ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদন্ডতেই তার বিচার হবে।

এমন হাজারো প্রশ্নই সাধারন মানুষের মনে আনাগোনা বিরাজ করছে।

(বাংলাদেশ একাত্তর.কম) সোহেল রানা

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, শিশু ধর্ষণের অপরাধে মৃত্যু দন্ড বিধির নুতন এ আইন পাশে সাক্ষর করার পর পরই রাজধানীর মিরপুর রূপনগর টিনসেড এলাকায় ঘটে গেল সেই শিশু ধর্ষন। জানা যায় মোঃ আতিকুর রহমান (২৮) নামের একব্যক্তি, রিতু নামের একটি মেয়েকে (১৪) একাধিকবার জোর পূর্বক ধর্ষণ করে আসছে এবিষয়ে রূপনগর থানায়, ৯(১), নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ সংশোধনী ২০০৩ বাদীনিকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তাহার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক ধর্ষন করার অপরাধে) ১০ই জানুয়ারী, ২০১৯ইং একটি ধর্ষণ মামলার অভিযোগ দায়ের করেন।

জান্নাতুল আক্তার রিতু সুবিচারের আশায় ঘুরপাক খাচ্ছে। ছবি- ঝাপসা করায়ে হয়েছে

এ মামলাটি তদন্ত করছেন, রূপনগর থানার চৌকস পুলিশ অফিসার, এস আই মিজানুর রহমান। জান্নাতুল আক্তার রিতু পিতা- হাবিবুর রহমান তার গ্রামের বাড়ী-গাতীপাড়া, থানা নান্দাইল, জেলা ময়মনসিংহ। ধর্ষনকারী মোঃ আতিকুর রহমান, পিতা-মোঃ মাহাফুজুর রহমান, মাতা- মোসাঃ আমিনা বেগম, স্থায়ী ঠিকানা গ্রাম- মন্ডলটারী,ডাকঘর -পাগলা,থানা- নাগেরশ্বরী, জেলা-কুড়িগ্রাম। বর্তমান /ঠিকানা-বাসা-৩৫২, রোড নং-১১, রূপনগর টিনসেন- থানা রূপনগর জেলা ঢাকা। এজাহারে উল্লেখ আছে, রিতু হত দরিদ্র পরিবারের সন্তান তাই বেঁচে থাকার তাগিদে দেশের বাড়ী থেকে ঢাকা রূপনগর চাচার বাড়ীতে উঠে গার্মেন্টসকর্মী হিসেবে চাকরি করেন।

একই বাসার ভাড়াটিয়া আতিক (পেশায় ড্রাইভার) রিতুকে রিতি মত মন গড়ানো কথা বলে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে আসছে।উলেখ্য, গত ইং ৩১/০৭/২০১৮ তারিখে হঠাৎ রিতু’কে তার চাচার ঘরে একা পেয়ে একপর্যায়ে রিতুর ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পুর্বক ধর্ষন করে। পরে রিতু বিয়ের জন্য চাপ দিলে আতিক নানান তালবাহানা করে। পরে এঘটনা জানা জানি হলে আতিকের পরিবার তাকে বিদেশে পালিয়ে যেতে সাহায্য করে বলে জানা যায়।

গরিব অসহায় না”বালিকা রিতু জীবন মানে কি সেকথা বোঝা উঠার আগেই আতিক নামের (গাড়ীর ড্রাইভার) পশুর লালসার শিকার হলেন। এবিষয়ে ডিএমপির শ্রেষ্ট ওসি হিসেবে স্বীকৃতি প্রাপ্ত ২০১৮, রূপনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, এস.এম শাহ আলম বলেন, শিশু-বাচ্চা,বয়স কম- আমি তার কথা শুনেছি , তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ভাবে আইনি ব্যবস্থা নিবো আমরা।তিনি আরও বলেন, খবর পেয়েছি আতিক বিদেশে পালিয়েছে আমরা তাকে প্রয়োজনে বিদেশ থেকে আনার সকল রকম ব্যবস্থা করবো।

এবিষয়ে ধর্ষনকারীর মায়ের সাথে কথা বলতে চাইলে সাংবাদিক দেখেই ধর্ষণকারীর মা”বোন, কোন কথা বলতে রাজি হননি বরং উল্টো সাংবাদিকদের নানান ভয়ভীতি দিখিয়ে বলেন, এ বিষয়ে যেনো মাথা না ঘামাই, না-হলে সাংবাদিকদের নামে চাঁদাবাজীর অভিযোগ করবেন বলেও হুমকি দেন।

Print Friendly, PDF & Email
Comments
Share
bangladesh ekattor

bangladesh ekattor

বাংলাদেশ একাত্তর.কম

Reply your comment

Your email address will not be published. Required fields are marked*

3 × three =