বুধবার , ২৮ মার্চ ২০১৮ | ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থ ও বাণিজ্য
  2. আইন ও আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. খেলাধুলা
  5. জাতীয়
  6. তথ্য-প্রযুক্তি
  7. ধর্ম
  8. বিনোদন
  9. বিশেষ সংবাদ
  10. রাজধানী
  11. রাজনীতি
  12. শিক্ষা
  13. শিল্প ও সাহিত্য
  14. সর্বশেষ সংবাদ
  15. সারাদেশ

বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন ঢাকা মহানগর কমিটি কর্তৃক স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা

প্রতিবেদক
bangladesh ekattor
মার্চ ২৮, ২০১৮ ৪:২৬ অপরাহ্ণ

বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন ঢাকা মহানগর কমিটি কর্তৃক স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে গতকাল মঙ্গলবার, ২৭শে মার্চ ২০১৮ ইং তারিখে ঢাকায় ইঞ্জিনিয়ারস্ ইনস্টিটিউটে(আইইবি) এক আলোচনা সভা ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যার আয়োজন করা হয়।

 

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা, সাবেক এমপি(ঢাকা-৭) ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাবেক স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক, বর্তমানে বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের (বিএমএ) নির্বাচিত সভাপতি ডাঃ মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন এবং বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ ওয়াছিউজ্জামান লেলিন, সভাপতি, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন।অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করেন নুরুল ইসলাম মজুমদার সবুজ,সভাপতি, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন ঢাকা মহানগর। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনায় ছিলেন, গিয়াস উদ্দিন মিয়াজি রাজু, সাধারণ সম্পাদক বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন ঢাকা মহানগর। উপস্থিত ছিলেন ফাউন্ডেশনের আরও অনেক নেতৃবৃন্দ। প্রধান বক্তা তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, উন্নয়ন হচ্ছে বাংলাদেশের। পদ্মাসেতু, মেট্টোরেলের মত বড় বড় কাজ হাতে নিয়েছে শেখ হাসিনা সরকার। বি.এন.পি-জামাত-কে ইঙ্গিত করে প্রধান বক্তা বলেন, দেশের উন্নয়ন যারা চায়নি তারাই বলে বেড়িয়েছিলো পদ্মাসেতু হবে না,পদ্মা সেতুর নাম করে সব টাকা পয়সা লুটপাট করে খাবে, আমি তাদের বলি আপনারা আসুন দেখুন বঙ্গবন্ধু কন্যা পদ্মা সেতু ঠিকই গড়ে তুলতেছেন, পদ্মা সেতু আজ দৃশ্যমান। হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মাত্র সাড়ে তিন বছর দেশ পরিচালনায় ছিলেন, শত্রু পক্ষ ভেবেছিলো জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কে মেরে ফেলে এদেশকে আবার পাকিস্তানীদের কাছে বিক্রি করে দেবে,কিন্ত কথায় আছে, রাখে আল্লাহ মারে কে। বাঘের ঘরে যে বাঘ হয় জননেত্রী শেখ হাসিনাই তার প্রমাণ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ ওয়াছিউজ্জামান লেলিন বলেন, বঙ্গবন্ধু না হলে এদেশ হতো না, শেখ হাসিনা না হলে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে বাংলাদেশের নাম কখনোই আসতো না। শুধু শেখ হাসিনাই পারে, দেশকে সঠিকভাবে পরিচালনা করতে। দেশের জনগনকে কত শান্তিতে রেখেছেন, বিদ্যুৎ এর সমস্যা নেই, গ্যাসের সমস্যা নেই, পানির সমস্যা নেই, খাদ্যের ঘাটতি নেই। ঢাকা সহ সারা বাংলাদেশ রাস্তা ঘাট সোনার মত চক চক করে। এই অবদান কার-প্রশ্ন করেন উপস্থিত জনতার কাছে। তখন সকলেই সমস্বরে বলেন, শেখ হাসিনা সরকার বার বার দরকার। পরে বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিচরন করে আগামী জাতীয় নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট চেয়ে তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্য শেষ করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ ওয়াছিউজ্জামান লেলিন, প্রতিষ্ঠাতা ও ভারপ্রাপ্ত সভাপতি, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন।
তিন মিনিট করে একে একে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে দেন, আলোচনার পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু হয়। রাত ১২টায় অনুষ্ঠানটি সমাপ্ত করা হয়।

সর্বশেষ - রাজনীতি

আপনার জন্য নির্বাচিত