রাজধানী

প্লাজমা সাপোর্ট সেন্টার উদ্বোধন

%e0%a6%aa%e0%a7%8d%e0%a6%b2%e0%a6%be%e0%a6%9c%e0%a6%ae%e0%a6%be-%e0%a6%b8%e0%a6%be%e0%a6%aa%e0%a7%8b%e0%a6%b0%e0%a7%8d%e0%a6%9f-%e0%a6%b8%e0%a7%87%e0%a6%a8%e0%a7%8d%e0%a6%9f%e0%a6%be%e0%a6%b0

(বাংলাদেশ একাত্তর.কম) শামীমা আক্তার।

প্লাজমা দিয়ে যদি করোনা আক্রান্ত একটি রোগীর প্রাণ বাঁচানো যায় এর থেকে মহৎ কাজ আর হতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা উওর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম।

রাজধানীর গুলশান-২ নগর ভবনে শনিবার” (২৭ জুন) দুপুরে প্লাজমা সাপোর্ট সেন্টারের’ উদ্বোধন উপলক্ষে  তিনি এ কথা বলেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন,  ডাক্তারের কাছ থেকে প্রেসক্রিপশন নিয়ে আসা ছাড়া কাউকে প্লাজমা দেওয়া হবে না। যেই করোনা রোগী আসুক প্রত্যেককে প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী প্লাজমা দেওয়া হবে, প্লাজমা যে দান করবেন আর যে গ্রহণ করবেন তারা প্রত্যেকেই প্রত্যেকের পরিচয় জানবেন। এটা নিয়ে আমরা কোন ভান্ত ধারণা রাখতে চাইনা। প্লাজমা নিয়ে একটি অসাধু চক্র মাঠে নেমেছে। এই অসাধু চক্রকে ভাঙার জন্যই আজ এই প্লাজমা সাপোর্ট সেন্টার তৈরি।

যুবকদের প্লাজমা ডোনেট করার আহ্বান করে আতিকুল ইসলাম আরো বলেন, যে সমস্ত যুবক করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন। তারা যেন ৬০০ এমেল প্লাজমা ডোনেট করেন করোনা আক্রান্ত রোগীদের। এই ৬০০ এমেল প্লাজমা দিয়ে তিনজন রোগীকে সুস্থ করা সম্ভব। প্লাজমা দিয়ে অনেক করোনা আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়ে উঠবেন। এর মাধ্যমে অনেক পরিবার বেঁচে যাবে। প্লাজমা সাপোর্ট সেন্টার একটি সেতুবন্ধন। এই সেন্টার মানুষের জন্য কাজ করবে। পয়সা কামানো বা ব্যবসা করা আমাদের কাজ না। এটা সমাজিক দায়বদ্ধতা থেকে করতে হবে। এসময় উপস্থিত প্লাজমা সাপোর্ট সেন্টারের সকল পর্যায়ে নেতৃবৃন্দ ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email
Comments
Share

bangladesh ekattor

বাংলাদেশ একাত্তর.কম

Reply your comment

Your email address will not be published. Required fields are marked*

nineteen − four =

বাংলাদেশ একাত্তর