রাজধানী

পল্লবীতে ময়লার স্থুপেই এডিস মশার জন্ম

%e0%a6%aa%e0%a6%b2%e0%a7%8d%e0%a6%b2%e0%a6%ac%e0%a7%80%e0%a6%a4%e0%a7%87-%e0%a6%ae%e0%a7%9f%e0%a6%b2%e0%a6%be%e0%a6%b0-%e0%a6%b8%e0%a7%8d%e0%a6%a5%e0%a7%81%e0%a6%aa%e0%a7%87-%e0%a6%ac%e0%a6%82

(বাংলাদেশ একাত্তর.কম) ঈদের ছুটি শেষে রাজধানীতে ফিরছে কর্ম ব্যস্ত মানুষ গুলো। খুলছে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান দেখা যাবে বন্ধ থাকা প্রতিষ্ঠানের টয়লেট ও আশপাশে ময়লা আবর্জনা ছড়িয়ে ছিটিয়ে জমে থাকে আর তাতেই এডিস মশা বংশবিস্তারের উপযোগী আস্থানা  সেসব জায়গায়।দেখা যায় পল্লবী থানাধীন এলাকায় রাস্তার পাশে যেখানে সেখানে ময়লারস্থুপ জমা হওয়ার কারনে ডেঙ্গু মশা বংশবিস্তার সম্ভব হচ্ছে। পল্লবী ২নং ওয়ার্ড কমিনিউটি সেন্টারের নীচ তলায় টয়লেট ও আশেপাশে ময়লার স্থুপ জমা হওয়ার কারনে মশা ভন ভন করে সর্বক্ষণ। পল্লবী থানার জব্দ মামলাকৃত গাড়ীর নির্দিষ্ট কোন স্থান না থাকায় থানার আশপাশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে মুল সড়কের উপর রাখার ফলে যেখানে সেখানে ময়লা জমে মশার বংশবিস্তারের সুযোগ করে দেওয়া হচ্ছে।

২নং ওয়ার্ড কমিনিউটি সেন্টারের পাশে ময়লার স্থুপ।

১৫ বছর ধরে দুর্গন্ধ ও মশার কামড় সয্য করতে হচ্ছে  সেকশন-১২ ব্লক-এ, রোড-নং ৭, বাসা-৪৪ ঠিকানার বাড়ীটির বসবাসরতদের, এর সামনে গরুর গোস্তের দোকান গরু জবাই গরুর মল-মূত্র ময়লা-আবর্জনা সব ড্রেনেই ফেলে তাতে দুর্গন্ধ আর মশা জন্ম হয় অতি দুরত্ব। নষ্ট হচ্ছে আশেপাশের পরিবেশ। উক্ত বাড়ীর মালিকের ভাতিজা একাধিক বার মৌখিক ভাবে উত্তর সিটি করপোরেশন ২ অভিযোগ করেও কোন লাভ হয়নি। এভিনিউ-৫, লাইন-১৭, রোডের শেষ মাথায় বন্ধু কল্যান সমিতির নামে খালী ও নিচু জায়গাতে ময়লা জমে এডিস মশার জন্ম তরতর করে বাড়ছে সেখানে না বোঝে এক মিনিট দাড়ালে মশা আর দুর্গন্ধ আপনাকে শেষ করে দিবে। এবিষয়ে এলাকাবাসী বলেন, আমাদের মেয়র আতিকুল ইসলাম মশা নিধনে নানা কর্মসূচী পালন করলেও তার কোন বাস্তবায়ন দেখতে পারছিনা এখানে। এলাকাবাসী রাজু বলেন, মশার ঔষধ রাস্তায় কোন মতে ছিটিয়ে দেয় যেখানে মশা বিস্তার সেখানে দেখছিনা। এই প্রতিবেদকের অনুসন্ধানে উঠে আসে, সেকশন-১২, এ-ব্লক, ৭,৮, ও ৯ নং রোডে আঃ আওয়ালের অবৈধ বাসষ্ট্যান্ড ও কালসী ট্রাক স্ট্যান্ড, বাউনিয়াবাধ টেম্পু স্ট্যান্ড,কলার আড়ৎ, পল্লবী হারুন মোল্লা ঈদগা মাঠ, টেকের বাড়ী সহ বিভিন্ন স্থানে এডিস মশা বংশবিস্তার করছে।

সরকার যতই মশা নিধনের পরিকল্পনা করুক না কেন তা বাস্তবায়ন হওয়া সম্ভবনা যতক্ষণ পর্যন্ত এসকল স্থানে মশার ঔষধ প্রতিদিন দুই বার না দেওয়া হলে।

অন্যদিকে পল্লবীতে খাবার হোটেল গুলোর অবস্থাও ভয়ংকর উল্লেখিত হোটেল গুলোর ভিতরে, উত্তর বঙ্গ, বিসমিল্লাহ, বিসমিল্লাহ-২ এসব খাবার হোটেল গুলোর ভিতর ও আশপাশে ময়লা স্থুপে প্রতিদিন বংশবিস্তার হচ্ছে হাজার হাজার এডিস মশা।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের নজরদারির অভাবে কারন হিসেবে মন্তব্য করছেন স্থানীয়রা।

Print Friendly, PDF & Email
Comments
Share

bangladesh ekattor

বাংলাদেশ একাত্তর.কম

Reply your comment

Your email address will not be published. Required fields are marked*

বাংলাদেশ একাত্তর