বুধবার , ৩ জুন ২০২০ | ১২ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আওয়ামীলীগ
  4. আন্তর্জাতিক
  5. খেলাধুলা
  6. জাতীয়
  7. তথ্য-প্রযুক্তি
  8. ধর্ম
  9. বি এন পি
  10. বিনোদন
  11. বিশেষ সংবাদ
  12. রাজধানী
  13. লাইফস্টাইল
  14. শিক্ষা
  15. শিল্প ও সাহিত্য

গৃহকর্মীকে পিটিয়ে জখম করা মালিকের ছেলের বিরুদ্ধে থানায় মামলা 

প্রতিবেদক
bangladesh ekattor
জুন ৩, ২০২০ ৮:৪১ অপরাহ্ণ

গৃহকর্মীকে পিটিয়ে জখম করা  মালিকের ছেলের বিরুদ্ধে  থানায় মামলা 

(বাংলাদেশ একাত্তর)  সুুমনঃ   রাজধানীর মিরপুরে বাড়ির  গেট খুলে না দেওয়ায় ষাটোর্ধ্ব গৃহকর্মীকে পিটিয়ে জখম করেছে  ওই বাড়ির মালিকের বড় ছেলে লাবু। সোমবার দুপুর ১২ টায় মিরপুর ১২ নম্বর ডি-ব্লক, ৯ নম্বর রোডের ১০ নম্বর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।  ঘটনার শিকার  গৃহ কর্মী মমতাজ বেগম (৬৫) মঙ্গলবার      মালিকের বড় ছেলে লাবুর বিরুদ্ধে  পল্লবী থানায় একটি   মামলা  করেন। মামলা নং ০২।  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পল্লবী থানার এস আই ও মামলার  তদন্তকারী কর্মকর্তা নুর  আলম।

মামলা সূত্র ও  ভুক্তভোগী মমতাজ বলেন  আমি বছর খানেক ওই বাড়িতে বুয়ার কাজ করি।বাড়ির  নীচ তলা ও ২ য় তলায় বাড়ির মালিক ও তার স্ত্রী থাকেন। আমি তাদের বাসায় কাজ করি। আর তাদের বড় ছেলে লাবু  থাকেন ৬ তলায় পরিবার নিয়ে ।  অন্যান্য দিনের  মতো রোববার  সকালে  ওই বাড়ির  নিচ তলায়  ঝাড়ু দিচ্ছিলাম।এমন সময় বাড়িয়ালনী এসে তার  ছেলে লাবুর  সাথে  দেখা হলে কথা বলতে নিষেধ করেন। এর কিছুক্ষন পর লাবু  বাজার  নিয়ে আসেন। বাসার  গেট  আটকানো  ছিল।লাবু  আমাকে  গেট খুলতে বলে।আমি তাকে দেখে সরে যাই। সে গেট খুলে  উপরে উঠে। কিছুক্ষন পর আবার  নীচে নামেন। আমি ঝাড়ু দিচ্ছিলাম।

লাবু হঠাৎ আমার মুখে ডিম ছুঁড়ে মারেন।এরপর হাত থেকে ঝাড়ু নিয়ে মারতে থাকেন।ঝাড়–ু ভেঙ্গে গেলে কাঠ দিয়ে পিটাতে থাকেন।পিটাতে পিটাতে আমাকে আড়মোড়া করে ফেলে।  আমার  আত্ন চিৎকারে  বাড়িয়ালা  ,ভাড়াটিয়া ও আশপাশের লোকজন ছুটে আসেন । তারা আামকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে বাড়ির মালিক  মান্নান বলেন  ছেলের  সাথে আমাদের সম্পর্ক ভালো নয়। সে কারো কথা শুনে না। আমরা কাজের বুয়াকে  বলেছি থানায় অভিযোগ দিতে।  লাবু  অবঃ প্রাপ্ত এক পুলিশ কর্মকর্তার ছেলে ।

লাবুর আপন বোনের ছেলে বলেন, আমার মামা যে কাজটি করেছে সেটা মারাত্মক অপরাধ করেছে। আমাদের বাসা নিচে সিসিটিভি ফুটেজে নির্যাতনের দৃশ্য ধারণ কার আছে। তিনি আরো বলেন, আমি প্রতিবাদ করায় আমার উপরও চড়া হয় মামা।

স্থানীয়  বাসিন্দা সোহেল  সহ কয়েকজন  বাসিন্দা জানান ঘটানার পর  আসামী লাবু  বাসায় অবস্থান করছেন। অথচ পুলিশ তাকে  খুঁজে  পায় না।

পল্লবী থানার এস আই  ও  মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা   নুর  আলম  বলেন  লাবুর বিরুদ্ধে ষাটোর্ধো  বয়স্ক মহিলাকে  মারধোরের অভিযোগে মামলা হয়েছে। তাকে আটক করতে একবার  অভিযানও হয়েছে। আটক করা যায়নি। আসামী  বাসায় ছিল না। পুনরায়  অভিযান হবে।

সর্বশেষ - সর্বশেষ সংবাদ