রাজধানী, সারাদেশ

করোনায় নিজ বাড়ী ভাড়া মওকুফ করলেন, আ.লীগ নেতা মঞ্জু দেওয়ান।

%e0%a6%95%e0%a6%b0%e0%a7%8b%e0%a6%a8%e0%a6%be%e0%a7%9f-%e0%a6%a8%e0%a6%bf%e0%a6%9c-%e0%a6%ac%e0%a6%be%e0%a7%9c%e0%a7%80-%e0%a6%ad%e0%a6%be%e0%a7%9c%e0%a6%be-%e0%a6%ae%e0%a6%93%e0%a6%95%e0%a7%81

করোনায় নিজ বাড়ী ভাড়া মওকুফ করলেন আ.লীগ নেতা দেওয়ান মোঃ মেহেদী মাসুদ মঞ্জু।

(বাংলাদেশ একাত্তর.কম) আব্দুল্লা আল মাসুমঃ  করোনা ভাইরাসের কারনে আর্থিক সংকটে ভুগছে নিম্ন ও মধ্যম আয়ের মানুষজন। সমাজের খেঁটে খাওয়া মানুষজন টুকিটাকি ত্রান পাচ্ছেন তবে বিপদে পড়েছে মধ্যবিত্তরা। এই শ্রেণীর মানুষেরা না পারছে বলতে না পারছে চাইতে।

করোনা পরিস্থিতিতে আগেই দুর্গতদের খাদ্য সহায়তা করেছিলেন সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দেওয়ান মোঃ মেহেদী মাসুদ মঞ্জু। এবার আশুলিয়া নিজ বাড়ির ভাড়াটিয়াদের বাড়ি ভাড়া মওকুফ ও ভাড়াটিয়াদের খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন মঞ্জু দেওয়ান।

তবে আশুলিয়া অঞ্চলে বেশির ভাগই (গার্মেন্টস) পোশাক শিল্পকারখানা বিভিন্ন নিম্ম আয়ের শ্রমিকের বসবাস। তাদের কথা বিবেচনা করে শিল্পাঅঞ্চল আশুলিয়ার বাড়িওয়ালা, শ্রমিক নেতা ও ভাড়াটিয়া পরিষদের সাথে সম্মিলিত বৈঠক করে এলাকায় বসবাসরত সকল শ্রমিকদের বাড়ি ভাড়া ৪০ শতাংশ মওকুফের আহবান করেন শিল্প পুলিশের পুলিশ সুপার সানা শামীনুর রহমান।

এ ডাকে সাড়া দিয়ে নিজ বাড়ির প্রায় অর্ধশতাধি পরিবারের ৪০ শতাংশ বাড়ী ভাড়া মওকুফ করেছেন সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দেওয়ান মোঃ মেহেদী মাসুদ মঞ্জু।

সাভার উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দেওয়ান মোঃ মেহেদী মাসুদ মঞ্জু বলেন, “মহামারি করোনাভাইরাসের কারনে দেশে অনেক শ্রমিকের কর্মস্থল বন্ধ কিছু কোম্পানি খুলছে তবে তাদের খাওয়া দাওয়া ও বাড়ী ভাড়া দিতে কঠিন হয়ে পড়েছে বর্তমানে। সরকার সারাদেশে ঘরে ঘরে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিচ্ছে। অসহায় ও মানবিক জীবনযাপন করছেন দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে আসা আশুলিয়ায় বসবাসরত শ্রমিক পরিবার গুলো। বর্তমানে সীমিত আকারে পোশাক কারখানা খুলে দেয়া হলেও বাকি শ্রমিকদের জন্য ৬৫ শতাংশ বেতন নির্ধারণ করায় বাড়ি ভাড়া ও খাওয়া নিয়ে বিপাকে পড়েছেন শ্রমিকরা। তাদের কথা বিবেচনা করে আমিও সবার সাথে সম্মিলিত হয়েছি। আমাদের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান, শিল্প পুলিশের পুলিশ সুপার সানা শামীনুর রহমান ও আশুলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ রেজাউল হক (দিপু) এর আহবানে সারা দিয়ে আমি ৪০শতাংশ ভাড়া মওকুফ করে দিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, “সব বাড়ীর মালিক যদি ভাড়াটিয়াদের পাশে সহযোগিতা করে তাহলে কোনো ভাড়াটিয়াই ভাড়া ও খাবারের জন্য রাতে চোখের পানি ফেলবেনা। আমি মনে করি ভাড়াটিয়ারাও আমাদের পরিবারের সদস্যদের মত।

প্রসঙ্গত যে, সরকারের পক্ষ থেকে সীমিক আকারে শিল্প কারখানা চালু রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বাকি শ্রমিকদের মোট বেতনের ৬৫শতাংশ নির্ধারণ করায় বাড়ি ভাড়া পরিশোধ ও খাওয়ার টাকা নিয়ে শঙ্কা ও হতাশায় পরেন তারা।

এরপরে গত ৮মে দুপুরে শিল্প পুলিশের পুলিশ সুপার, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, বাড়িওয়লা এবং আশুলিয়ার ভাড়াটিয়া পরিষদের যৌথ বৈঠকে শ্রমিকদের ৪০ শতাংশ বাড়ি ভাড়া মওকুফের আহ্বানে সম্মিলিত উপস্থিত হয়ে বাড়িওয়ালারা এ সিদ্ধান্তকে স্বাগতিক জানান। এতে ভাড়াটিয়াদের মুখে হাসি ফুটে। ভাড়াটিয়া মাসুৃম বলেন, আমরা অনেক খুশি দেওয়ান সাহেবের এই মহৎ উদ্যোগের জন্য।

এখবর শুনে সাভার উপজেলাসহ আশুলিয়া থানা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, কৃষকলীগ ও বিভিন্ন পেশাজীবিরা দেওয়ান মেহেদি মাসুদ মঞ্জু কে স্বাগতিক জানিয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email
Comments
Share

bangladesh ekattor

বাংলাদেশ একাত্তর.কম

Reply your comment

Your email address will not be published. Required fields are marked*

five + 18 =

বাংলাদেশ একাত্তর