আইন ও আদালত

এলডিপি চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমি তো মনে করি এরশাদ ঐক্যবদ্ধভাবে এই কাজটা করেছে,কারাগারে বন্দি রাখার পেছনে

%e0%a6%8f%e0%a6%b2%e0%a6%a1%e0%a6%bf%e0%a6%aa%e0%a6%bf-%e0%a6%9a%e0%a7%87%e0%a7%9f%e0%a6%be%e0%a6%b0%e0%a6%ae%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%be%e0%a6%a8-%e0%a6%ac%e0%a6%b2%e0%a7%87%e0%a6%a8

জিয়া আরফানেজ ট্রাস্ট দূর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বাংলাদেশের ৩ বার নির্বাচিত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে পরিত্যক্ত কারাগারে বন্দি রাখার পেছনে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত এইচ এম এরশাদের যোগসাজশ রয়েছে বলে সন্দেহ করেছেন এলডিপি চেয়ারম্যান অলি আহমদ।  তিনি বলেন, ‌‘আমরা শুনেছি তাকে (খালেদা জিয়া) কয়েদির কাপড় পরানো হয়েছে এবং পুরনো একটি জেলে রাখা হয়েছে। এটা কী কারণে করা হল?’

দুর্নীতি মামলায় দন্ডিত খালেদা জিয়াকে কারাগারে নেওয়ার দুই দিন পর শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্যে বিএনপির জোট সঙ্গী দলটির নেতা এই সন্দেহের কথা জানান।

এলডিপি চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমি তো মনে করি এরশাদ (সাবেক রাষ্ট্রপতি) মুক্ত আছে। তাকে নাজিমউদ্দিন রোডের কারাগারে রাখা হয়েছিলে। এটা হয়ত সরকার, আওয়ামী লীগ এবং এরশাদ ঐক্যবদ্ধভাবে এই কাজটা করেছে।’

তিনি বলেন, গত বৃহস্পতিবার রায়ের পর জাতীয় পার্টির ইয়াহিয়া চৌধুরী সংসদে বলেছিলেন- “বেগম জিয়া একদিন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে বিনা অপরাধে কারাগারে পাঠিয়েছিলেন। ভাগ্যের কী নির্মম পরিহাস সেই জেলখানায় এখন খালেদা জিয়া।’’

“আজ থেকে ২৮ বছর আগে কারাগারে থাকা অবস্থায় হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ একটি বরই গাছ লাগিয়েছিলেন। সেই গাছে এখন বরই ধরেছে। সুযোগ থাকলে খালেদা জিয়াকে সেই বরই খেতে দেওয়া হোক।”

এরশাদ যখন বন্দি ছিলেন, খালেদা জিয়ার তখনকার সরকারের মন্ত্রী অলি বলেন, ‘সরকার তো দুইটা নতুন জেল নির্মাণ করেছে। উনাকে (খালেদা) সসম্মানে সেখানে রাখতে পারত।  একটা পরিত্যক্ত জেলে তাকে নেওয়ার প্রয়োজন ছিল না।’

‘এই রকম একটা জায়গায় বেগম জিয়াকে কেন রাখা হল না, বর্তমান সরকারকে একদিন তার জবাব একদিন দিতে হবে,’ যোগ করেন তিনি।

খালেদার মুক্তির দাবিতে বিএনপির দেওয়া সব কর্মসূচির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে এলডিপি চেয়ারম্যান বলেন, ‘নির্বাচন থেকে দূরে রাখার জন্য, বিএনপিকে ধ্বংস করার জন্য বেগম খালেদা জিয়াকে অন্যায়ভাবে সাজা দেওয়া হয়েছে। এটা সরকারের পূর্ব পরিকল্পনার অংশ বলে আমরা মনে করি।’

তেজগাঁওয়ে এলডিপি কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলনে দলের মহাসচিব রেদোয়ান আহমেদ, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আবদুল করীম আব্বাসী, আবদুল গনি, কামালউদ্দিন মোস্তফা, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email
Comments
Share
bangladesh ekattor

bangladesh ekattor

বাংলাদেশ একাত্তর.কম

Reply your comment

Your email address will not be published. Required fields are marked*

fourteen − 1 =