আইন ও আদালত, রাজধানী

আরেক পাপিয়া কান্ড

%e0%a6%86%e0%a6%b0%e0%a7%87%e0%a6%95-%e0%a6%aa%e0%a6%be%e0%a6%aa%e0%a6%bf%e0%a7%9f%e0%a6%be-%e0%a6%95%e0%a6%be%e0%a6%a8%e0%a7%8d%e0%a6%a1

বাংলাদেশ একাত্তরঃ জাহিদুল ইসলাম পাপ্পু।

বাবার পেনশনের টাকা দিয়ে  মায়ের নামে একটি  ফ্ল্যাট কিনেন ২০০০ সালে। বড় দুই ভাই কে ঠকিয়ে জাল দলিল করে নিজের নামে ভাগিয়ে নিতে নানা কৌশল অবলম্বন করছে মিরপুর শিয়ালবাড়ী  (AIUB) ভার্সিটির শিক্ষার্থী আয়েশা আক্তার জুঁই।

এ বিষয়ে, জুইয়ের বিরুদ্ধে রুপনগর থানায় একটি জিডি করেছেন আপন বড় ভাই শোয়েব আহমেদ।

জিডির কিছু অংশ তুলে ধরা হলো, আমরা যে বাসায় বসবাস করছি, সেই ফ্ল্যাট আমার বাবা মায়ের নামে বিগত ৪-৯-২০০০ সালে  ক্রয় করে দেন। সেই থেকে অদ্যবধি আমরা এই ফ্ল্যাটে।

প্রাইভেট ভার্সিটি (AIUB) তে ভর্তি হওয়ার পর থেকে আমার বোন আয়েশা বেগম জুই (২৭) এর স্বভাব চরিত্রের পরিবর্তন লক্ষ্য করতে পারি বেশ কিছু দিন যাবত, সে অসামাজিক কার্যক্রমে লিপ্ত হয়ে পড়ে। বিভিন্ন বয়ফ্রেন্ডদের বাসায় যাতায়াত করতে শুরু করে এবং অনলাইনে ইমো, ফেসবুক,স্কাইপ ইত্যাদির মাধ্যমে ছেলেদের সামনে অরুচিকর পোষাক পড়ে অর্থ আয় করতে শুরু করে। এছাড়াও অরুচিকর পোশাক পরিহিত অবস্থায় বাহিরে বের হয় আমি ভাই হিসেবে এটা মেনে নিতে পারিনি।

আয়েশা আক্তার জুঁই
ছবি-সংগৃহিত

বোনকে এ বিষয়ে নিষেধ করলে সে ক্ষিপ্ত হইয়া হুমকি দেয় আমাকে ও আমার স্ত্রীকে যে ভাবে হোক বাসা থেকে বের করে দিবে। তখন আমি বলি, কেন বের হবো এটা আমার বাবার কেনা সম্পত্তি। এই ফ্ল্যাটে তোমার যেমন অধিকার আছে তেমনি আমার ও অধিকার আছে। তারপর থেকে সে আমাকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিচ্ছে।

আমি যেন ফ্ল্যাট ছেড়ে চলে যাই। না গেলে আমাকে তার লোকজন দিয়ে মারধর, এমনকি যৌন নির্যাতনের মামলায় ফাঁসিয়ে দিবে।

গত ১৬ই জুন, ২০২০ তারিখ রাতে  আমাদের বাসার ভিতরে আটক করে রাখে। এবং ২০শে জুন ২০২০ তারিখে বাসা খালি করতে বলে।

এ বিষয়ে শোয়েব বলেন, বর্তমানে জুই পাপিয়ার চেয়ে কোনো অংশে কম নয়! জুই যেহেতু অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত সে পারেনা এমন কোনো খারাপ কাজ নেই। আমার বোনের শ্বশুর, পল্লবী মাজেদুল ইসলাম মডেল হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক তার কুপরামর্শে সে এগুলো করছে।

ছবি-সংগৃহিতঃ আয়েশা আক্তার জুঁই ও তার বয়ফ্রেন্ড

আমাকে ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর অফিস থেকে ডাকা হয়েছে, আমার বোন নাকি সেখানে আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে।

তিনি আরো বলেন, বাবার টাকায় কেনা ফ্ল্যাট, ৬০লাখ টাকা ‘এফডিআর’  মায়ের নামে রেখে যায়। বাবা মারা যাওয়ার পর সেই টাকা আমার বোন ভার্সিটিতে পড়ালেখার কথা বলে প্রায়ই ২০ লক্ষ টাকা  হাতিয়ে নিয়েছে, কিন্ত ঠিক মত ক্লাস না করে সে খারাপ দিকে পা-বাড়িয়েছে।

এ বিষয়ে জানার জন্য জুুইয়ের ব্যবহারিক মুঠোফোনে একাধিকবার  কল করলে ও ওপাশ থেকে কোনো উত্তর পাওয়া যায়নি।’

এ বিষয়ে রুপনগর থানার (এস আই) ফারুক বলেন, আমি জিডি পেয়েছি কোর্টের অনুমতি পেলেই ঘটনা স্থলে যাবো।

Print Friendly, PDF & Email
Comments
Share
bangladesh ekattor

bangladesh ekattor

বাংলাদেশ একাত্তর.কম

১ Comments

  1. Avatar
    শোভন
    জুন ২৭, ২০২০ at ১২:৩৯ পূর্বাহ্ণ

    আয় হায়! এই মেয়ে তো আমাদের সাথে পড়তো। পড়া শেষ না করে বের হয়ে গেছে ভার্সিটি থেকে। ছি ছি! কি অবস্থা!

Reply your comment

Your email address will not be published. Required fields are marked*

one × two =